গণজাগরণ মঞ্চের ইমরান সরকারকে ছেড়ে দিয়েছে র‌্যাব

Home Page » আজকের সকল পত্রিকা » গণজাগরণ মঞ্চের ইমরান সরকারকে ছেড়ে দিয়েছে র‌্যাব
বুধবার, ৬ জুন ২০১৮



ফাইল ছবি

গণজাগরণ মঞ্চের মুখপাত্র ইমরান এইচ সরকারকে জিজ্ঞাসাবাদ শেষে ছেড়ে দিয়েছে র‌্যাব। বুধবার বিকেলে শাহবাগ থেকে গ্রেফতারের পর রাত ১১টার দিকে তাকে ছেড়ে দেওয়া হয়।

র‌্যাবের আইন ও গণমাধ্যম শাখার পরিচালক কমান্ডার মুফতি মাহমুদ খান সমকালকে এতথ্য জানিয়েছেন।

বিকেল ৪টার দিকে শাহবাগে জাতীয় জাদুঘরের সামনে সমাবেশ ও বিক্ষোভ মিছিলের প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন গণজাগরণ মঞ্চের নেতাকর্মীরা। সাড়ে ৪টার দিকে ওই এলাকায় যান ইমরান এইচ সরকার।

এক পর্যায়ে সাদা পোশাকের ৮-৯ জনের একটি দল মাইক্রোবাসে তাকে জোরপূর্বক তুলে নেওয়ার চেষ্টা করেন। আগে থেকেই গণগ্রন্থাগারের সামনে অবস্থান করছিল ওই মাইক্রোবাসটি।

তাকে মাইক্রোবাসে তোলার সময় গণজাগরণ মঞ্চ ও ছাত্র ইউনিয়নের নেতাকর্মীরা বাধা দেন। এর পরই সাদা পোশাকের সদস্যরা ‘র‌্যাব’ লেখা একটি কাগজ সাঁটিয়ে দেয় তাদের মাইক্রোবাসে। ‘একটু যেতে হবে’ বলে ইমরানকে মাইক্রোবাসে তুলে নেন র‌্যাবের সদস্যরা।

এ সময় গণজাগরণ মঞ্চের কর্মীরা বাধা দিতে গেলে র‌্যাব সদস্যরা তাদের লাঠিপেটা ও ধাওয়া দেন। গণজাগরণ মঞ্চের পাঁচ কর্মী আহত হন তখন।

র‌্যাব-৩ এর অধিনায়ক লে. কর্নেল মোহাম্মদ এমরানুল হাসান সমকালকে তখন বলেন, আগে অনুমতি না নিয়ে অবৈধভাবে জনসমাবেশ করছিলেন ইমরান এইচ সরকার। র‌্যাব সদস্যরা তার সঙ্গে কথা বলতে গেলে গণজাগরণ মঞ্চের লোকজন র‌্যাবের ওপর আক্রমণ করে। এ সময় ইমরানসহ তার লোকজন সরকারি কাজে বাধা দেন। এর পরই গ্রেফতার করা হয় তাকে।

বাংলাদেশ সময়: ২৩:৪৪:৩৭   ১৩৪ বার পঠিত  




পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)

আজকের সকল পত্রিকা’র আরও খবর


বিএনপি বাদে ঐক্যফ্রন্টের চার শরিকের চাহিদা ১৫০ আসন
সুনামগঞ্জ-১ আসনের নির্বাচনী হালচাল
রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে জালিয়াতির দায়ে আটক মুনসুরকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে আজ মঙ্গলবার সকালে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট রনী খাতুন এই আদেশ দেন।
অভিযানের নামে তারা রোহিঙ্গাদের নির্বিচারে হত্যা শুরু করে মিয়ানমার সেনাবাহিনীর দল
ব্যারিস্টার মইনুল গ্রেফতার
নির্বাচন নিয়ে যারা সংশয় প্রকাশ করছে তাদের উদ্দেশ্য সব ষড়যন্ত্র মোকাবিলা করে সংসদ নির্বাচন হবে: প্রধানমন্ত্রী
আর্থ-সামাজিকসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে দেশের মানুষের জীবনে সত্যিই একটা পরিবর্তন এসেছে: প্রধানমন্ত্রী
খাশোগি হত্যার বিষয়ে এতদিন বেশ চুপচাপই ছিলেন এরদোয়ান।
নিরাপদ সড়কের দাবিতে আমজনতা শিশু-কিশোরদের সমর্থনে রাস্তায় নেমেছিল
জাতির সামনে তুলে ধরতে ব্যর্থ হলে প্রকাশ্যে ব্যারিস্টার মইনুল হোসেনকে

আর্কাইভ