যাত্রী কল্যাণ সমিতি ‘মনগড়া’ রিপোর্ট প্রকাশ করেছে - ওবায়দুল কাদের

Home Page » জাতীয় » যাত্রী কল্যাণ সমিতি ‘মনগড়া’ রিপোর্ট প্রকাশ করেছে - ওবায়দুল কাদের
বুধবার, ১১ জুলাই ২০১৮



 

ফাইল ছবি  বঙ্গ-নিউজ: সড়ক দুর্ঘটনা নিয়ে কাজ করা যাত্রী কল্যাণ সমিতিটিকে ‘ভুয়া’ হিসেবে আখ্যায়িত করেছেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। এমনকি তারা ‘মনগড়া’ রিপোর্ট প্রকাশ করেছে বলে ক্ষোভ প্রকাশ করেন মন্ত্রী।

মঙ্গলবার (১০ জুলাই) জাতীয় সংসদ অধিবেশনে প্রশ্নোত্তর পর্বে জাতীয় পার্টির সেলিম উদ্দিনের সম্পূরক প্রশ্নের জবাবে এসব কথা বলেন তিনি। তিনি বলেন, ‘যাত্রী কল্যাণ নামে যে একটি সংগঠন রয়েছে তাদের কোনো রেজিস্ট্রেশনই নেই। তারা দুর্ঘটনা নিয়ে মনগড়া রিপোর্ট প্রকাশ করেছে। যার তথ্য সঠিক নয়, অতিরঞ্জিত।’

‘সদ্য শেষ হওয়া ঈদে সড়ক দুর্ঘটনায় মৃত্যুর পরিসংখ্যান নিয়ে যাত্রী কল্যাণ সমিতির রিপোর্টকে ভুয়া আখ্যায়িত করে’ মন্ত্রী বলেন, ‘সংবাদপত্রের এক রিপোর্টে দেখলাম, ‘যাওয়ার সময় ৪২ এবং আসার সময় ৪২’ অর্থাৎ দুর্ঘটনায় ৮৪ জনের মৃত্যু হয়েছে।’

‘অথচ সেখানে যাত্রী কল্যাণ সমিতি তাদের মনগড়া তথ্য দাঁড় করিয়েছে। তারা বলেছে, ৩৩৯ জনের মৃত্যু ঘটেছে! আমাদের এখানে ১০ হাজার লোকের মৃত্যু গত ২০ বছরে রেকর্ডও হয়নি। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থারও একটা রিপোর্ট আছে। এ বছরে দুর্ঘটনায় মৃত্যুর যে রেকর্ড সেখানেও ৫ হাজারের বেশি উল্লেখ করা নেই। তারা মনগড়া রিপোর্ট দিয়ে মানুষকে বিভ্রান্ত করছে। যেটা মোটেও কাম্য নই। এ বিষয়ে সবাইকে সতর্ক থাকা দরকার।’

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘এনডিটিভি অনলাইনে দেখলাম সড়ক দুর্ঘটনায় ভারতে প্রতি ঘণ্টায় ১৭ জনের মৃত্যু হয়। এশিয়া মহাদেশের মধ্যে সড়ক দুর্ঘটনায় আমাদের দেশ যে এগিয়ে সেটাও সত্য নয়।’

‘সাম্প্রদায়িক রাজনীতির সঙ্গে জড়িত এমন একটা লোক এই সংগঠনের নেতৃত্ব দেয়। সময়ে সময়ে মতলবি মহল তাকে আশ্রয় দেয়-প্রশ্রয় দেয়। আমিও দেখেছি সমাজের বিশিষ্টজনরাও ওই লোকটির সংবাদ সম্মেলনে হাজির হন।’ ছবি সংগৃহীত  ‘সড়ক দুর্ঘটনার জন্য শুধু বেপরোয়া চালক আর রাস্তাকেই দায়ী করা হয়’ এ কথাটির সঙ্গে একমত নন সড়ক পরিবহন মন্ত্রী। তিনি মনে করেন, ‘বেপরোয়া পথচারীরাও অনেক সময় সড়ক দুর্ঘটনার কারণ।’

‘এখানে রাস্তায় ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের ব্যাপার আছে, সচেতনতারও ব্যাপার আছে। শুধু বেপরোয়া ড্রাইভার আর রাস্তা দায়ী না। বেপরোয়া পথচারীরাও অনেক সময় সড়ক দুর্ঘটনার কারণ।’

নিজের অভিজ্ঞতার বিবরণ দিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘আমি কিছুক্ষণ আগে যখন রাস্তা দিয়ে আসছিলাম। তখন দুটি পয়েন্টে দেখতে পেলাম, হঠাৎ করে এক ঝাঁক তরুণ রাস্তায় নেমেছে। গাড়ি তো চলছে, চলমান গাড়ি। সে সময় যদি কেউ গাড়ির তলায় পিষ্ট হয়, কাকে দায়ী করবেন? তারপর দেখলাম একটা মেয়ে রাস্তা পার হচ্ছে মোবাইলে কথা বলতে বলতে। চলমান গাড়ি অনেক কষ্টে থামাতে হলো। সে অবস্থায় চলমান গাড়ি যদি তাকে চাপা দেয়, সেটার জন্য কে দায়ী হবে? আপনি যাচ্ছেন, গাড়িতে চড়ে, দিক বিজয়ী আলেকজান্ডার অনেক সময় ড্রাইভার হয়ে যায়! তখন ঘটে বিপত্তি।’

তিনি আরও বলেন, ‘অনেক সময় যাত্রীরা আনন্দে বাসের জানালা দিয়ে হাতটাকে প্রসারিত করেন, টা টা করেন। তখন আরেকটা গাড়ি এসে আপনার হাতটা নিয়ে গেল, এখানে কে দায়ী? এখানে শুধু বেপরোয়া ড্রাইভার দায়ী নয়, রাস্তাও না। বেপরোয়া পথচারীও অনেক সময় দুর্ঘটনার কারণ।’

বাংলাদেশ সময়: ৭:৪৫:২৩   ২৩ বার পঠিত   #  #  #  #  #  #




পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)

জাতীয়’র আরও খবর


প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে গণসংবর্ধনায় সোহরাওয়ার্দীতে নেতাকর্মী-জনতার ঢল
নারায়ণগঞ্জে ৩ দোকানে ডাকাতি
সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে প্রধানমন্ত্রীর গণসংবর্ধনা , যানবাহন চলাচলে ডিএমপি’র নির্দেশনা
চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা কারাগারে প্রচণ্ড গরমে অসুস্থ হয়ে পড়েছেন ১১ জন কয়েদি
আগামী দিনে সব ক্ষেত্রে এগিয়ে নেওয়ার জন্য একটি শিক্ষিত জাতি গড়ে তোলার উদ্যোগ নিয়েছি: প্রধানমন্ত্রী
নাটোরে জেহাদি বইসহ ৩ ‘জেএমবি’ সদস্য গ্রেফতার
এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষার পাসের হার ৬৬ দশমিক ৬৪
উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষার ফলাফল আজ
ব্যাংকের ভল্টে জমা দেওয়া স্বর্ণ অন্য ধাতু হওয়ার বিষয় সঠিক নয়: বাংলাদেশ ব্যাংক
নড়াইলে মানহানির মামলায় খালেদা জিয়ার জামিন নামঞ্জুর

আর্কাইভ