যেকোনো সময় বড় সিদ্ধান্ত:ফরহাদ হোসেন

Home Page » জাতীয় » যেকোনো সময় বড় সিদ্ধান্ত:ফরহাদ হোসেন
বৃহস্পতিবার, ২৪ জুন ২০২১



ফাইল ছবি-জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন        বঙ্গ-নিউজ: জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন জানিয়েছেন, দেশে করোনাভাইরাসের সংক্রমণের ঊর্ধ্বগতি প্রতিরোধে যেকোনো সময় সারাদেশে লকডাউনসহ বড় কোনো সিদ্ধান্ত আসতে পারে। দেশের বর্তমান উদ্বেগজনক পরিস্থিতি নিয়ে কথা বলার সময় আজ এ কথা জানান তিনি।

প্রসঙ্গত, গত কয়েক দিন ধরেই দেশে করোনার সংক্রমণের ঊর্ধ্বগতি লক্ষ করা যাচ্ছে। সেই ধারাবাহিকতায় গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে ৬ হাজার ৫৮ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে এবং মৃত্যু হয়েছে ৮১ জনের। আজ স্বাস্থ্য অধিদপ্তর এ তথ্য জানিয়েছে।

অন্যদিকে, দেশে উদ্বেগজনক হারে করোনার ডেল্টা ধরনের সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় সারাদেশে কমপক্ষে ১৪ দিনের সম্পূর্ণ ‘শার্টডাউন’ দেওয়ার সুপারিশ করেছে কোভিড-১৯ সংক্রান্ত জাতীয় কারিগরি পরামর্শক কমিটি। আজ এক বিজ্ঞপ্তিতে কমিটি জানিয়েছে, কোভিড রোগের বিস্তার নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যাওয়া এবং জনগণের জীবনের ক্ষতি প্রতিরোধ করার জন্য বর্তমান পরিস্থিতিতে কঠোর পদক্ষেপ ছাড়া বিকল্প কোনো উপায় নেই।

প্রতীকি ছবি-ডেল্টা ভাইরাস

এ বিষয়ে জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেনের দৃষ্টি আকর্ষণ করা হলে আজ বিকেলে তিনি বলেন, তাদের সুপারিশ আমরা সক্রিয়ভাবে বিবেচনা করব। এটি কমানোর (করোনার সংক্রমণ) জন্য যা যা করা প্রয়োজন হবে, সেটাই আমরা করব।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, সংক্রমণ কমানোর জন্য আমরা বিভিন্নভাবে চেষ্টা করছি। এ লক্ষ্যে স্থানীয়ভাবে বিধিনিষেধ আরোপ করে এটাকে (করোনা) কন্ট্রোল (নিয়ন্ত্রণ) করার চেষ্টা করছি আমরা। অবস্থা ও পরিস্থিতি বিবেচনা করে যেটা করা প্রয়োজন হবে আমরা সেটাই করব।

ফরহাদ হোসেন আরো বলেন, সংক্রমণটা এখন ঊর্ধ্বমুখী। ইতোমধ্যে ৬ হাজার ছাড়িয়ে গেছে দৈনিক সংক্রমণ। খুব গভীরভাবে পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করছে সরকার। পরিস্থিতি অনুযায়ী প্রয়োজনীয় সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। যেখানে যেমন বা সেক্ষেত্রে যে ব্যবস্থা উপযুক্ত হবে, সেভাবেই আমরা সিদ্ধান্ত নেব। পরিস্থিতি বুঝে আমরা যেকোনো সময় যেকোনো সিদ্ধান্ত নিতে পারি।

জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী বলেন, এর আগেও দৈনিক সংক্রমণ ৭ হাজার ছাড়িয়ে গিয়েছিল। তখন ব্যবস্থাও নেওয়া হয়েছে। সাধারণ বিধিনিষেধ এখনো চলছে। এ ছাড়া ঢাকার আশপাশের এলাকাগুলোতে ইতোমধ্যে কঠোর বিধিনিষিধ জারি করা হয়েছে। তার পরও লোকজন ঢাকার মধ্যে ঢুকে যাচ্ছে। বাস, ট্রেন, যাত্রীবাহী নৌযান ইতোমধ্যে বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। এই সিদ্ধান্তগুলো কিন্তু আমরা পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করেই নিয়েছি।

প্রসঙ্গত, গত ৫ এপ্রিল থেকে জারি করা বিধিনিষেধ পরবর্তীতে শর্ত সাপেক্ষে কিছু কিছু ক্ষেত্রে ছাড় দিয়ে এখনো বহাল আছে। সর্বশেষ গত ১৬ জুন এক প্রজ্ঞাপন জারি করে বিধিনিষেধের মেয়াদ আগামী ১৫ জুলাই মধ্যরাত পর্যন্ত বাড়িয়েছে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ। এই বিধিনিষেধের মধ্যেই গত ২২ জুন ঢাকাকে বিচ্ছিন্ন করে রাখতে আশপাশের ৭ জেলায় কঠোর লকডাউন আরোপ করা হয়। এ ছাড়া স্থানীয় প্রশাসন সংশ্লিষ্ট জেলা, উপজেলা, পৌরসভা বা বিশেষ কোনো এলাকায় সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে বিধিনিষেধ আরোপ করছে।

বাংলাদেশ সময়: ২১:০২:৫৯   ৯৩ বার পঠিত   #  #  #  #




পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)

জাতীয়’র আরও খবর


৪ ঘণ্টা বন্ধ থাকবে সিএনজি স্টেশন
উত্তরের জেলা কুড়িগ্রামে হবে কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়
চলতি বছরের এইচএসসি ফরম পূরণের সময় আবারও বাড়লো
খালেদা জিয়াকে প্রথমে জেলে যেতে হবে তারপর বিদেশ - আইনমন্ত্রী
১৮ মাস বন্ধের পর আজ স্কুল-কলেজে ফিরছে শিক্ষার্থীরা
শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলেছে! দর্জির দোকানে উপচেপড়া ভীড় !
পরীমনিদের মতো মডেল, নায়িকারা নিগৃহীত হতে পারে - অধ্যাপক ডক্টর সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী
৪০০০ চিকিৎসক নিয়োগ আজই ; ৪২ তম বিসিএস এ
ভবিষ্যতে দ্বন্দ্বে না জড়ানোর তাগিদ; চীন ও আমেরিকা
বাংলাদেশের সিরিজ জয়

আর্কাইভ

16. HOMEPAGE - Archive Bottom Advertisement