ড. সৈয়দ মনিরুজ্জামানের জীবনী ও গ্রন্থ

Home Page » শিক্ষাঙ্গন » ড. সৈয়দ মনিরুজ্জামানের জীবনী ও গ্রন্থ
রবিবার, ২০ জুন ২০২১



 ড. সৈয়দ মনিরুজ্জামানের ফাইল ছবি

চলুন নতুন মানবিক দুনিয়া গড়ি - অনুপ্রেরণার সত্য গল্প শুনি ‘ শিরোনামে বঙ্গনিউজ বিডিসি চ্যানেলের নিয়মিত অনুষ্ঠানে ১২ই জুন ২০২১ রাত ৯ঃ৩০ টায় বাংলাদেশ সময় বাংলাদেশের গর্বিত সন্তান আমেরিকা প্রবাসী মেটেরিয়াল বিজ্ঞানী ড. সৈয়দ মনিরুজ্জামান তাঁর জীবনের নানা কথা নানা গল্প শোনালেন যা বাঙ্গালি যুব সমাজের জন্য সত্যিই অনুপ্রেরণামূলক । অনুষ্ঠানটি বাংলাদেশের শিশু কিশোর ও যুবকদের জন্য উৎসর্গ করা হয়েছে।
শিশু কিশোর যুবদের জন্য এবং সকল সাধারণ ও গবেষকদের জন্য মেটেরিয়াল বিজ্ঞানী ড. সৈয়দ মনিরুজামান এর ‘বিডিসি গুগল জীবনী ও ডকুমেন্টারি আর্কাইভস’ চিরদিনের জন্য প্রকাশ করা হলোঃ
ড. সৈয়দ মনিরুজামান ১৯৬৪ সালের মে মাসের ২ তারিখ বরিশাল জেলার শায়েস্তাবাদ নামক একটি ছোট্ট গ্রামে দাদার বাড়ীতে জন্ম গ্রহন করেন। এই গ্রামটি নানান কারনে সারা বাংলাদেশে পরিচিত। এখানে কবি সুফিয়া কামাল, প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি আব্দুর রাহমান বিশ্বাস এর জন্মভুমি এবং ডঃ কামাল হোসেন এর নানা বাড়ী। ডঃ সৈয়দ মনিরুজামান ১৯৮০ সালে যশোর বোর্ডের অধীনে এই গ্রামের শায়েস্তাবাদ মোআজ্জেম হোসেন উচ্চ বিদ্যালয় থেকে S.S.C. এবং বাবার চাকরীর কারনে ১৯৮২ সালে ঢাকা বোর্ডের কবি নজরুল সরকারি কলেজ থেকে H.S.C. পাস করেন। তিনি জাহাঙ্গিরনগর বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পদার্থ বিদ্যায়ে ১৯৮৭ সালে বিএসসি (সন্মান)এবং মাষ্টার ডিগ্রি অর্জন করেন। ডিগ্রি অর্জনের পর কিছু দিন ঢাকায় একটি research organization কাজ করেন। জাপান সরকারের বৃত্তি নিয়ে উচ্চশিক্ষার জন্য ১৯৯১ সালে তিনি জাপান গমন করেন। ১৯৯৫ সালে কাণাজাওয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে থেকে Opto-ELECTRONICS এ MASTERS OF ENGINEERING এবং একই বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ১৯৯৯ সালে materials science and engineering এ পিএইচডি ডিগ্রী অর্জন করেন। কাণাজাওয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে থাকা কালীন তিনি নানান AWARD পেয়েছেন তার মধ্যে Japan society of applied physics এর best research poster award, Komatsu green Foundation grant, Ishikama prefecture education grant, MITANI sango grant for foreign student, UGC Scholarship, Bangladesh,

ড. সৈয়দ মনিরুজ্জামানের ফাইল ছবি

ড.মনিরুজ্জামান জাপানে থাকা কালীন সময়ে নানান volunteer activities এর সাথে যুক্ত ছিলেন। তিনি জাপানের নানান বিদ্যালয়ে ENGLISH পড়াতেন, নিজ দেশকে পরিচিতি মূলক নানান রেডিও শোতে অংশগ্রহণ করতেন। তারই উদ্যোগে MATTO city Japan Bangladesh friendship Association করা হয়েছে।তিনি তার আজীবন বিদেশী উপদেশ দাতা সদস্য। দেশের নানান দুর্যোগে সরকারি তহবিলে এই Association থেকে সাহায্য করা হয়েছে। তার নিজস্ব উদ্যোগে ১৯৯৬ সালে East West welfare Association এবং ২০০০ সালে beyond Bangladesh societ নামক volunteer organization প্রতিষ্ঠা করেন। এই প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে বাংলাদেশে নানান জেলার মাধ্যমিক স্কুলে ছাত্র/ ছাত্রীদের আর্থিক অনুদান দেয়া হয়ে থাকে।

২০০০ সাল থেকে তিনি আমেরিকাতে পরিবার নিয়ে বসবাস করেন।২০০৫ সালে তার পরিবারের উদ্যোগে Pennsylvani state এর Drexel hill city তে SHOROLIPI Bangla Sunday school প্রতিষ্ঠা করেন। যেখানে আমেরিকাতে জন্ম ও বেড়েওঠা ছেলে মেদের বাংলা ভাষা ও কালচার শেখানো হয়ে থাকে । তিনি আমেরিকার নানান বিশ্ববিদ্যালয় বিভিন্ন পদে কর্মরত ছিলেন। ২০০০-২০০১ সাল পর্যন্ত Drexel University, Philadelphia তে visiting research scholar, ২০০১- ২০০৬ সালে temple University, Philadelphia তে post doctoral research fellow & ২০০৬-২০০৯ পর্যন্ত research scientist হিসেবে সেখানে কর্মরত ছিলেন। ২০০১২-২০০১৩ সালে lock heav University of Pennsylvani তে পদার্থ বিজ্ঞানের সহকারী অধ্যাপক হিসাবে কর্মরত ছিলেন।

বর্তমানে তিনি টেনেছি অঙ্গ রাজ্যের মেম্ফীছ শহরের “লেমোণ-ওয়েন কলেজের” পদার্থ বিজ্ঞানের সহযোগী অধ্যাপক হিসেবে কর্মরত আছেন । কর্ম জীবনে তিনি বহু স্বীকৃতি ও AWARD পেয়েছেন। ২০১৪ সালে LEMOYNE-OWEN COLLEGE থেকে service recognition award সহ ২০১৯ সালে T.R. McLEMORE award for excellent in teaching award পেয়েছেন। বর্তমানে তিনি solar energy নিয়ে গবেষণা করেন। তিনি ও তার ছাত্র/ছাত্রী মিলে নতুন একটি পদ্ধতির মাধ্যমে NANO-MATERIALS তৈরি করছেন যা কিনা উচ্চ দক্ষতার সোলার সেল বানাতে কাজে লাগবে। তার research articles নানান নামকরা জার্নালে প্রকাশিত হয়েছে। তার একোক নামের ৪০+ প্রকাশনা রয়েছে। তার মধ্যে উল্লেখ্যঃ (11) Moniruzzaman Syed, Brittany Anderson, Joe Mvula, Yahia Hamada, Muhtadyuzzaman Syed and Tej Prasad Poudel “Effects of SiOx Aging Time on Nano Crystalline Silicon Thin Film for Optoelectronic Devices using Sol-Gel Method” International Journal of Scientific Research and Engineering Development; Vol. 2 Issue 4, Page 20-30, ISSN : 2581-7175, July – Aug 2019.
তার কাজের স্বীকৃতি হিসেবে তাকে society of VACCCU coaters Foundation ২০১৭ সাল থেকে board member পদ দিয়েছেন এবং ২০১৮ ও ২০১৯ সালে তিনি এই সোসাইটি থেকে poster presentation award ও পেয়েছেন।২০১৮ সাল থেকে International Journal of Scientific Research and Engineering Development (IJSRED)তাকে editorial board member করেছেন। তিনি নানান research organization এর সাথে যুক্ত তার মধ্যে উল্লেখ্যঃ American Physical Society, member, 2012 to date,
American Vacuum Society (AVS), 2014 to date
American Association of Physics Teachers, member, 2010-date
Japan Society of Applied Physics, Member, 1996-2010
Materials Research Society, Member, 1996-2000
Electro Chemical Society, member, 1998-2000

ড. সৈয়দ মনিরুজ্জামানের ফাইল ছবি

তার সহধর্মিনী Philadelphia University থেকে interior architect এ মাস্টার্স শেষ কোরে বর্তমানে University of Memphis এ কর্মরত। এক পুত্র আর এক কন্যা নিয়ে তাদের সুখের সংসার । ছেলে purdue University, Indiana থেকে electrical and computer engineering এ under graduate কোরে artificial intelligence (AI) এ Georgia Institute of technology, Georgia থেকে masters শেষ কোরে data scientist হিসেবে verizon telephone company তে কর্মরত। মেয়ে এবছর ১২ grade শেষ কোরে University OF Memphis এ BIO-MEDIC

বাংলাদেশ সময়: ১১:৪৫:২৬   ১৩০ বার পঠিত   #  #  #  #  #  #  #




পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)

শিক্ষাঙ্গন’র আরও খবর


শিক্ষার্থীদের অ্যাসাইনমেন্ট বিতরণ বন্ধ!!
এসএসসি-এইচএসসি পরীক্ষা নভেম্বের অথবা ডিসেম্বেরেঃশিক্ষামন্ত্রী
ঈদে বাড়িতে পৌঁছে দিতে জাবি প্রশাসনের কাছে শিক্ষার্থীদের আবেদন
টিকা দেওয়ার পর স্কুল খুলবে: প্রধানমন্ত্রী
ঢাকা কলেজে বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি পালন করলো “ঢাকসাস”
অনলাইন শিক্ষাদান আরও জোরদার করতে হবে: ডা. দীপু মনি
ড. সৈয়দ মনিরুজ্জামানের জীবনী ও গ্রন্থ
আমেরিকা থেকে অনুপ্রেরনার সত্য জীবন গল্প শোনালেন মেটেরিয়াল বিজ্ঞানী ড. সৈয়দ মনিরুজ্জামান
আই-ট্রিপলি এনএউবি স্টুডেন্ট শাখার দু’বছর উদযাপন।
শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলছে কি জুনে?

আর্কাইভ

16. HOMEPAGE - Archive Bottom Advertisement