“দ্য ইন্টারন্যাশনাল ক্রিয়েটিভ আর্টস এওয়ার্ড ২০২৩” পেলেন পোল্যান্ড প্রবাসী লেখক শামছুন নাহার আহমেদ

Home Page » সাহিত্য » “দ্য ইন্টারন্যাশনাল ক্রিয়েটিভ আর্টস এওয়ার্ড ২০২৩” পেলেন পোল্যান্ড প্রবাসী লেখক শামছুন নাহার আহমেদ
বৃহস্পতিবার ● ২১ ডিসেম্বর ২০২৩


“দ্য ইন্টারন্যাশনাল ক্রিয়েটিভ আর্টস এওয়ার্ড ২০২৩” পেলেন পোল্যান্ড  প্রবাসী লেখক শামছুন নাহার আহমেদ

বঙ্গনিউজঃ সৃজনশীল লেখনীর জন্য ICALDRC Linguistics Unit of Dhaka University পোল্যান্ড  প্রবাসী লেখক শামছুন নাহার আহমেদকে  The International Creative Arts Award -2023 (আন্তর্জাতিক সৃজনকলা পুরষ্কার ২০২৩ ) প্রদান করেছে । ২রা ডিসেম্বর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আর সি মজুমদার আর্টস অডিটোরিয়ামে অনুষ্ঠিত Discussion on “Impact of Language & Literature on Enriching Minds and Inspiring Lives & The International Creative Arts Award-2023 Giving Ceremony “. অনুষ্ঠানে এই পদক ও সম্মাননা সনদ প্রদান করা হয়।
অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন সুনামগঞ্জ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড: মো: আবু নঈম শেখ, কী নোট স্পীকার ছিলেন ফ্লোরিডা ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি, ইউ,এস,এ এর অধ্যাপক নেছার ইউ আহমেদ( Fulbright scholar, US Public Diplomacy), বিশেষ অতিথি ছিলেন বাংলাদেশের জাতীয় চলচ্চিত্রে আজীবন সম্মাননা প্রাপ্ত নাট্যশিল্পী ডলি জহুর, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রত্নতত্ত্ব বিভাগের প্রফেসর ড: একেএম শাহনেওয়াজ এবং The International Creative Arts Language & Development Research Centre ( ICALDRC) এর মহাসচিব অধ্যাপক লুৎফর রহমান জয়।
অনুষ্ঠানেটির সভাপতিত্ব করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাষাবিজ্ঞান বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড: আসাদুজ্জামান। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ICALDRC ভাষাতত্ব ইউনিট বিভিন্ন ক্ষেত্রে গবেষণা, সাহিত্য প্রকাশনা, পরিবেশনা শিল্প, শিক্ষা ও সাংস্কৃতিক কর্মকাণ্ডে জীবনঘনিষ্ঠ নন্দনশৈলীকে প্রত্যায়ন করে সৃজনশীলতার এই পদক ও সম্মাননা প্রদান করেছে।
শামছুন নাহার আহমেদ পোল্যান্ডে অবস্থান করার কারণে তার পক্ষে ICALDRC এর বাঙ্গলাদেশি কর্মকর্তা তানজিনা ফেরদৌস পদক ও সার্টিফিকেট গ্রহণ করেন।
শামছুন নাহার  ১লা জানুয়ারি, ১৯৬২ খ্রীঃ  ঢাকার সাভারে জন্ম গ্রহণ করেন।

পোল্যান্ড  প্রবাসী লেখক শামছুন নাহার আহমেদ এর পদক ও সার্টিফিকেট গ্রহণ করছেন তানজিনা ফেরদৌস

তার উল্লেখযোগ্য গ্রন্থসমূহঃ

(১) ভালবাসার নীল দুয়ার ( কাব্য) ২০০১।

 

 (২) কষ্টের ঝুল বারান্দা ( কাব্য) ২০০২।

 

 (৩) অনুভবে ছুঁয়েছি তোমায় ( কাব্য) ২০০৬।

 

(৪) নগ্ন রাতের ঘ্রাণ ( কাব্য) ২০০৭।

 

(৫) ফিরে এসো পুরাণের পাখি হয়ে ( কাব্য)

 

 ( ৬) পঞ্চ কবির প্রেম কাব্য( কাব্য) ২০১৬।

 

(৭) স্পর্শের উষ্ণতা (কাব্য) ২০১৭।

 

(৮) ভুতের তিন বোন (শিশুতোষ) ২০১৭।

 

(৯) স্বপ্নিলের গ্রাম দেখা (শিশুতোষ) ২০১৮।

 

 (১০) ঘুড়ি উৎসব ( শিশুতোষ)

 ( ১১) মুগ্ধ প্রজাপতি (কাব্য) প্রকাশক দি রয়েল পাবলিশার্স।.

 অন্যান্য সাংস্কৃতিক কর্মকাণ্ড ও অবদান ঃ

( ১) ১৯৭৬-১৯৭৭ সালে স্কুল কলেজে অধ্যয়ন কালে মঞ্চ নাটকে অভিনয়।
(২) ১৯৮২ সালে মহিলাদের জন্য সৃজনী মহিলা পাঠাগার প্রতিষ্ঠা।
(৩) ১৯৮৩ সালে সৃজনী মহিলা পাঠাগারের পক্ষ থেকে স্বাধীনতা দিবস উযযাপন ও সংকলনগ্রন্থ প্রকাশ।
(৪) ২০০২ সালে জাতীয় প্রেস ক্লাবে স্বাধীনতার ৩১ বছর প্রাপ্তি ও প্রত্যাশা শীর্ষক সেমিনার উপস্থাপনা।
(৫) ২০০২ - ২০০৪ সালে সংস্কৃতি মন্ত্রনালয়ের অধীনে কেন্দ্রীয় পাবলিক লাইব্রেরী কতৃক আয়োজিত স্বাধীনতা বই মেলা উপলক্ষে সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান গ্রন্থনা, উপস্থাপনা ও পরিচালনা।
(৬) ২০০৪ সালে জাতীয় যাদুঘর সুফিয়া কামাল মিলনায়তনে বিশিষ্ট কবি ও নজরুল গবেষক অধ্যাপক ড, মোহাম্মদ মনিরুজ্জামানের ৬৭ তম জন্মদিন উপলক্ষে সংবর্ধনা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান গ্রন্থনা ও পরিচালনা।
(৭) ২০০৬ সালে কবি জসীমউদদীন সাহিত্য পরিষদ, সাভার এর সাহিত্য সম্পাদিকা নির্বাচিত।
(৮) ২০১৩ সালে কবি জসীমউদদীন পরিষদ সাভার এর সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত।
( ৯) ২০১৬ সালে লায়ন্স ক্লাব অব ঢাকা ইউনিক গ্রীন এর চার্টার প্রেসিডেন্ট এর দায়িত্ব গ্রহন করে বিভিন্ন জেলার স্কুলের ছাত্র/ ছাত্রীদের জন্য এমিউজমেন্ট প্রোগ্রাম কবিতা আবৃতি, গান, যাদু প্রদর্শন ও বই বিতরণসহ পাঠাগার প্রতিষ্ঠার ব্যবস্থা গ্রহন।
(১০) ২০১৭ সালে কবি জসীমউদদীন পরিষদ, সাভার এর সহ সভাপতি নির্বাচিত।
(১১) ২০১৭ সালে সাভার সংস্কৃতি সংসদ এর সম্পাদক নির্বাচিত।

(১২) ২০১৮ সালে সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোট সাভার এর নির্বাহী সদস্য নির্বাচিত।

১৯. উল্লেখযোগ্য পুরস্কার ও সম্মাননা ঃ

(১) ১৯৭৯ সালে ইন্টারন্যাশনাল রেডিও ক্লাবের আজীবন সদস্য পদ লাভ এবং শ্রেষ্ঠ সদস্য সংগ্রাহক নির্বাচিত।
(২) ১৯৮২ সালে কবিতা প্রতিযোগীতায় কলেজ বার্ষিকী পুরস্কার লাভ।
(৩) ২০০২ সালে শ্রেষ্ঠ সংগঠক পুরস্কার লাভ। (৪) ২০০৬ ০ ২০০৭ সালে বাংলাদেশ সাহিত্য ও সংস্কৃতি পুরস্কার লাভ।
(৫) ২০০৭ সালে কবি জসীমউদদীন পরিষদ সাভার কতৃক সংবর্ধনা লাভ।
(৬) ২০১০ সালে কবিতার জন্য সাংবাদিক বজলুর রহমান স্মৃতি স্বর্ণপদক লাভ।
(৭) ২০১৫ সালে ১০ম ইন্টারন্যাশনাল রাইটার্স ফেস্টিভ্যাল, কেরালা, ভারত থেকে কবিতার জন্য সাহিত্য শ্রী সম্মাননা লাভ।
(৮) ২০১৭ সালে শেরপুর সংস্কৃতি পরিষদ, শেরপুর, বগুড়া কতৃক শিশু সাহিত্য সম্মাননা লাভ।

“দ্য ইন্টারন্যাশনাল ক্রিয়েটিভ আর্টস এওয়ার্ড ২০২৩”

বাংলাদেশ সময়: ১৫:৫৪:১৫ ● ৪২২ বার পঠিত




পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)

আর্কাইভ