স্বেচ্ছায় লকডাউনে চলে যাচ্ছে সিলেট নগরীর মানুষ

Home Page » প্রথমপাতা » স্বেচ্ছায় লকডাউনে চলে যাচ্ছে সিলেট নগরীর মানুষ
বুধবার, ৮ এপ্রিল ২০২০



ফাইল ছবি

পবিত্র সরকার, সিলেট প্রতিনিধি বঙ্গ-নিউজঃ  সিলেটে করোনা আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হওয়ার পর আতঙ্ক দেখা দিয়েছে নগরবাসীর মধ্যে। নগরের অধিকাংশ এলাকার মানুষ স্বেচ্ছায় লকডাউনে চলে গেছেন।

দুদিন আগেও মানুষদের ঘরে আটকে রাখতে যখন সেনাবাহিনী, , পুলিশকে হিমশিম খেতে হচ্ছিল। অথচ এখন করোনাভাইরাস আতঙ্কে স্বেচ্ছায় ‘লকডাউনে’ চলে গেছেন এই মানুষগুলো।

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ এড়াতে তারা পাড়ার ভেতরে বহিরাগতদের প্রবেশ ও ভেতরে অপ্রয়োজনে কারও বের হওয়ার পথ বন্ধ করে দিয়েছেন। বন্ধ করে দিয়েছেন পাড়ায় ঢোকার প্রবেশপথ।

মঙ্গলবার সকালে সরেজমিনে দেখা যায়, নগরের হাওলাদার পাড়ার কিছু কিছু ব্লক গুলোতে, অস্থায়ী গেইট স্থাপন করা হয়েছে, ও প্রবেশমুখে লেখা রয়েছে, ‘বহিরাগতরা প্রবেশ নিষেধ, স্টে হোম, স্টে সেইফ, লকডাউন। করোনাভাইরাস প্রতিরোধে সামাজিক সচেতনতা গড়ে তুলুন।’

একইভাবে নগরের বিভিন্ন বাসিন্দারা প্রবেশ মুখে বাঁশ দিয়ে ব্যারিকেড তৈরি করে স্বেচ্ছায় লকডাউনে যান। ‘বহিরাগতদের প্রবেশ নিষেধ’ কাগজে লিখে লাগানো হয়েছে সতর্কবার্তা। সঙ্গে রয়েছে একটি সতর্কীকরণ পোস্টার।

একই চিত্র দেখা যায়, নেহারি পাড়া সহ আসেপাশের এলাকা গুলোতে। হাওলাদার পাড়ার বাসিন্দারা জানান, দেশে করোনাভাইরাস আক্রান্ত মানুষের সংখ্যা দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। সরকারের একার পক্ষে এই করোনা নিয়ন্ত্রণ সম্ভব নয়; যদি না আমরা নিজ থেকে সচেতন হই। সরকার থেকে শুরু করে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী মানুষকে প্রতিদিন সচেতন করার চেষ্টা করছে। তাদের এই সচেতনতা কেউ মানছেন, কেউ আবার মানছেন না। তাই নিজের সুরক্ষায় ও পাড়ার বাসিন্দাদের করোনার হাত থেকে বাঁচাতে আমরা সচেতনতামূলক এ উদ্যোগ নিয়েছি।

এদিকে বিভিন্ন পাড়ায় এলাকায় বাঁশ দিয়ে অস্থায়ী গেট নির্মাণ করে বন্ধ করে দেয়া হয়েছে পাড়া বা মহল্লার প্রবেশ পথ, ইমার্জেন্সি রাস্তা খোলা রেখেছেন।

এলাকার বিভিন্ন জন বলেন প্রতিদিন কারণে-অকারণে এলাকায় অনেক বহিরাগত আসেন। তাদের যাতায়াতের কারণে এখানে করোনার সংক্রমণ হতে পারে। ঝুঁকি এড়াতে এই সব পদক্ষেপ নিয়েছে।

একইভাবে বিভিন্ন পাড়ার লোকজনের বাইরে বের হওয়ায় ক্ষেত্রে কড়াকড়ি আরোপ করা হয়েছে বিভিন্ন ওয়ার্ডের বাসিন্দারা। ওষুধ ও নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসপত্র কেনাসহ জরুরি প্রয়োজন ছাড়া কেউ পাড়ার বাইরে যেতে বা জরুরি প্রয়োজন ছাড়া বহিরাগতরা পাড়ার ভেতর প্রবেশ করতে পারবেন না।

ফাইল ছবি

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে নগরের বেশিরভাগ মহল্লার প্রবেশপথে বহিরাগতদের প্রবেশ ও ভেতরে অপ্রয়োজনে কারও বের হওয়ার পথ বন্ধ করে দিয়েছেন।

সিলেট নগরের মির্জাজাঙ্গাল , লালদিঘীরপার ও আম্বরখানা মণিপুরি পাড়া ছাড়াও শিবগঞ্জ, সুবিদবাজারের লন্ডনি রোড, বড়বাজার, করেরপাড়া, নয়াসড়কের মিশন গলি, বাগবাড়ি গোয়াবাড়ি, সুবিদবাজার কলাপাড়াসহ বিভিন্ন এলাকায় এলাকাবাসী স্বেচ্ছায় লকডাউন করেছেন। ও যেসব এলাকা এখনো স্বেচ্ছায় লকডাউন এ যাচ্ছে না, ঐ সব এলাকায় ত পদক্ষেপ নিচ্ছে বাসিন্দারা।

বাংলাদেশ সময়: ১০:১৪:৩২   ২৩২ বার পঠিত   #  #  #  #




পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)

প্রথমপাতা’র আরও খবর


যেকোনো সময় বড় সিদ্ধান্ত:ফরহাদ হোসেন
চিকিৎসা বিজ্ঞানীদের নতুন মাথাব্যথার কারণ ডেল্টা ভ্যারিয়েন্ট!
করোনার এক নতুন ভ্যারিয়েন্ট আবিষ্কার !!!
পরীমণির মামলায় নাসির ও অমি এখন থানায়!!
ফের রিমান্ডে নাসির, সতর্কতার সাথে জিজ্ঞাসাবাদের আদেশ
আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে প্রধানমন্ত্রীর শেখ হাসিনা শ্রদ্ধা
বিশ্বে করোনায় আক্রান্ত ১৮ কোটি প্রায় !!!
অনলাইন শিক্ষাদান আরও জোরদার করতে হবে: ডা. দীপু মনি
ইউপিএলের প্রতিষ্ঠাতা মহিউদ্দিন আহমেদ ইন্তেকাল করেছেন
ভাঙ্গায় চলছে ৭ দিনের লক ডাউন

আর্কাইভ

16. HOMEPAGE - Archive Bottom Advertisement