তিন মাসের বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ থাকাই যথেষ্ট: প্রধানমন্ত্রী

Home Page » জাতীয় » তিন মাসের বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ থাকাই যথেষ্ট: প্রধানমন্ত্রী
শুক্রবার ● ২৯ জুলাই ২০২২


ফাইল ছবি প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনা

বঙ্গ-নিউজ: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, আমাদের ৩ মাসের খাদ্য কেনার জন্য বৈদেশিক মুদ্রার যে রিজার্ভ দরকার, সেটা থাকলেই যথেষ্ট। রিজার্ভ একটু কম-বেশি হবেই। কিন্তু কিছু লোক আছে, যারা এটা নিয়ে নানা মন্তব্য করে এবং গুজব ছড়িয়ে বেড়ায়।

খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণতা অর্জনে গুরুত্ব দিয়ে প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, ভোগ্যপণ্য ও খাদ্যপণ্যে পরনির্ভরশীলতা কমাতে হবে, নিজের দেশে উৎপাদন বাড়াতে হবে।

‘বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব সেন্টেনিয়াল কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্র’সহ দেশের বিভিন্ন উপজেলায় নির্মিত ২৪টি কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের (টিটিসি) উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির ভাষণে প্রধানমন্ত্রী এ কথা বলেন।

রাজধানীর ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয় এবং জনশক্তি কর্মসংস্থান ও প্রশিক্ষণ ব্যুরো আয়োজিত এই অনুষ্ঠানে গণভবন থেকে ভার্চুয়ালি যুক্ত হন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বৈদেশিক মুদ্রা অর্জনে রপ্তানি বাড়ানোর ওপর গুরুত্বারোপ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, শুধু রেমিটেন্সের ওপর নির্ভর না করে রপ্তানির দিকে আরও বেশি মনোযোগী হতে হবে।

তিনি বলেন, বৈদেশিক মুদ্রা অর্জনের জন্য বিদেশে নতুন বাজার খুঁজতে হবে, রপ্তানি বাড়াতে পণ্যে বহুমাত্রিক বৈচিত্র্য আনতে হবে।

বৈধ পথে রেমিট্যান্স পাঠানোর আহ্বান জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, ‘হুন্ডির মাধ্যমে টাকা পাঠালে আমাদের শ্রমিকদের কষ্টার্জিত অর্থ এজেন্টরা নিজেদের পকেটে ভরে। ব্যাংকের মাধ্যমে পাঠালে হয়তো এক দুই টাকা বেশি লাগতে পারে, কিন্তু টাকাটা নিরাপদ থাকে।’

রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধ প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, মহামারি করোনা মোকাবেলা করতে না করতেই শুরু হয়েছে যুদ্ধ। এই যুদ্ধ অর্থহীন। কারণ যারা অস্ত্র তৈরি করে তারাই শুধু যুদ্ধে লাভবান হচ্ছে, আর জীবন বিপন্ন হচ্ছে সাধারণ মানুষের।

তিনি বলেন, শুধু যুদ্ধই নয়, তার সঙ্গে চলছে পাল্টাপাল্টি নিষেধাজ্ঞা। ফলে সারা বিশ্বে অর্থনৈতিক ঝুঁকি তৈরি হয়েছে, মন্দা দেখা দিচ্ছে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, এতে উন্নত দেশগুলোও বিদ্যুৎ, জ্বালানি, খাদ্য নিরাপত্তা নিয়ে শঙ্কিত এবং এসব সাশ্রয়ে বিভিন্ন পদক্ষেপ নিচ্ছে। আজকে জ্বালানি সাশ্রয়ের ব্যাপারে সব দেশই নানা উদ্যোগ গ্রহণ করছে। আমরাও অনুসরণ করছি সেটা।

কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের গুরুত্বারোপ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমাদের দরকার হচ্ছে একটা দক্ষ জনশক্তি গড়ে তোলা। যুব সমাজকে দক্ষ করতে নানা পদক্ষেপ নিচ্ছি আমরা।

প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী ইমরান আহমদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে সংসদীয় স্থায়ী কমিটির চেয়ারম্যান ব্যারিস্টার আনিসুল ইসলাম মাহমুদ, প্রবাসী কল্যাণ সচিব ড. আহমেদ মুনিরুছ সালেহীন এবং বিএমইটির মহাপরিচালক মো.শহিদুল আলম বক্তব্য দেন।

বাংলাদেশ সময়: ১১:০৮:০২ ● ৩৬০ বার পঠিত




পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)

আর্কাইভ