অ্যানেন্সেফ্লাই কী? - রুমা আক্তার

Home Page » ফিচার » অ্যানেন্সেফ্লাই কী? - রুমা আক্তার
শুক্রবার, ৭ অক্টোবর ২০২২



 অ্যানসেফালি

অ্যানেন্সেফ্লাই কী?

“Anencephaly” হলো এমন এক ধরনের রোগ যেখানে শিশুর শরীরের সমস্ত অঙ্গ-প্রত্যঙ্গ সুগঠিত হলেও মাথার স্ক্যালের অংশ আর ব্রেইন তৈরি হয় না।

এই নিউরাল টিউব কনসিভের পর ৪-৫ সপ্তাহ বা ২৮-৩২ দিনের মধ্যে তৈরি হয়ে বন্ধ হয়ে যায়।যদি কোনো কারনে টিউবের কোনো অংশ বন্ধ না হয় তখনই নিউরাল টিউব ডিফেক্ট হয়ে জন্মগত এই ত্রুটি Anencephaly হয়।

নিউরাল টিউব ডিফেক্টের কিছু কারনঃ

১) মা-বাবার জিনগত কিছু সমস্যা।

২) ফলিক এসিডের ঘাটতি।

৩) এন্টিসাইকোটিক ড্রাগস গ্রহন।

৪) ওপিয়ড বা ব্যাথানাশক ঔষুধ গ্রহণ।

কিভাবে এই সমস্যা বুঝা যাবে?

১২-১৪ সপ্তাহের মধ্যে আল্ট্রাসনোগ্রাম করলেই এই সমস্যা বুঝতে পারা যাবে। এছাড়া ও মায়ের Serum Alpha-fetoprotien, MRI, Amniocentesis ইত্যাদি টেস্টের মাধ্যমে জানা যায়।

“Anencephaly” এর লক্ষণঃ

১)Cerebrum অনুপস্থিত।

২)Cerebellum অনুপস্থিত।

৩) অন্ধত্ব।

৪) বধিরতা।

৫) ব্যথা অনুভব।

এ রোগের কি কোনো চিকিৎসা আছে??

এ রোগের কোনো চিকিৎসা নেই।

এ রোগের কি কোনো প্রতিরোধ ব্যবস্থা আছে?

হ্যাঁ, প্রতিরোধ ব্যবস্থা রয়েছে। কনসিভ করার ৩ মাস আগে ও পরে নিয়মিত ফলিক এসিড খেতে হবে। প্রথম ২ মাস কোনো ব্যথানাশক ওষুধ ও এন্টিসাইকোটিক ড্রাগস গ্রহন করা যাবে না।

জন্মের পরে এই শিশু কতদিন পর্যন্ত বেঁচে থাকে?

এরা বেশির ভাগ সময় গর্ভেই নষ্ট হয়ে যায়। আবার জন্মের পর কয়েক ঘন্টা/ দিন/ সপ্তাহ /১ বছর পরে ও মারা যায়।

সচেতনতা বৃদ্ধি করা অত্যন্ত প্রয়োজন। অনেকেই অনেক কথা বলেন যেমন :

১) আগেকার যুগের মানুষতো ডাক্তার দেখাতোনা।

২)আমারতো এখন কোনো সমস্যা নাই তাহলে কেন ডাক্তার দেখাবো?

৩) আমি ঔষধ খেতে পারিনা বমি আসে।

৪) ৬মাসে আল্ট্রা করবো এতো আগে আল্ট্রা করে কি লাভ?

৫) অনেকে বলেন হয় ৮মাসে আল্ট্রা করবো অথবা আল্ট্রাই করবোনা।

এজন্য প্রথম দিক থেকেই আল্ট্রাসনোগ্রাম করতে হবে এবং সবসময় ডাক্তারের চেকআপে থাকতে হবে।

রুমা আক্তার
শিশু বিকাশ ও সামাজিক সম্পর্ক বিভাগ
গর্ভমেন্ট কলেজ অব অ্যাপ্লাইড হিউম্যান সাইন্স
আজিমপুর,ঢাকা।

বাংলাদেশ সময়: ১:০০:০৭   ২৩৫ বার পঠিত   #  #  #




পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)

ফিচার’র আরও খবর


অ্যানেন্সেফ্লাই কী? - রুমা আক্তার
শেখ হাসিনা বাংলাদেশে নারী ক্ষমতায়নের অগ্রদূত : স্পিকার ; ১০০০ নারী উদ্যোক্তা’র মধ্যে ৫ কোটি টাকার অনুদান প্রদান
“ম্রো’ আদিবাসীর গো হত্যা’ অনুষ্ঠাণ ” - তানিয়া শারমিন
আলোকিত স্বপ্ন নিয়ে তৃতীয় বর্ষে রবিকর ফাউন্ডেশন
নারীর অর্থনৈতিক ক্ষমতায়ন রক্ষায় প্রয়োজন জেন্ডার সংবেদনশীল নীতির পর্যালোচনা
জিনগত ত্রুটির অপর নাম “ডাউন সিনড্রোম”- রুমা আক্তার
মোহাম্মদ শাহ আলমের জীবন ও কর্ম
ইসফাহান নেসফে জাহান
সিলেটে গ্রুপ ফেডারেশনের কর্মশালায় বির্তকিত মুরাদ- আয়োজকদের দুঃখ প্রকাশ
ডলারের দাম যেভাবে বাড়ছে, টাকার দাম কেন কমছে

আর্কাইভ

16. HOMEPAGE - Archive Bottom Advertisement