আফগানিস্তান, সার্টিফিকেট ছিঁড়ে ফেলা সেই অধ্যাপক জেলে !!

Home Page » জাতীয় » আফগানিস্তান, সার্টিফিকেট ছিঁড়ে ফেলা সেই অধ্যাপক জেলে !!
শুক্রবার ● ৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৩


অধ্যাপক ইসমাইল মাশাল

বঙ্গ-নিউজ: আফগানিস্তানে নারী শিক্ষায় নিষেধাজ্ঞার বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানিয়ে নিজের সার্টিফিকেট ছিঁড়ে ফেলা সেই অধ্যাপককে জেলে পুরেছে তালেবান সরকার। ইসমাইল মাশাল নামের ওই অধ্যাপককে বৃহস্পতিবার কাবুল থেকে গ্রেপ্তার করা হয়। খবর বিবিসি ও আল জাজিরা।

অধ্যাপক মাশালের ঘনিষ্ঠজন হিসেবে পরিচিত ফরিদ আহমেদ ফজলি আজ শুক্রবার (৩ ফেব্রুয়ারি) গণমাধ্যমকে জানান, কাবুলের নামকরা সাংবাদিকতার অধ্যাপক ইসমাইল মাশালকে রাস্তা থেকে ধরে নিয়ে গেছে তালেবান। এ সময় তিনি নিজের সংগ্রহে থাকা কিছু বই কাবুলের বাড়ি বাড়ি গিয়ে বিনামূল্যে বিতরণ করছিলেন।

ফরিদ আহমেদ আরো জানান, আটকের সময় অধ্যাপক মাশালকে নির্দয়ভাবে মারধর করেছে তালেবান সদস্যরা।

আফগানিস্তানে তালেবান সরকার বর্তমান মেয়াদে ক্ষমতায় এসে নারীদের পোশাক পরা, বাইরে বের হওয়া, শিক্ষাদীক্ষা, চাকরি-বাকরি নিয়ে নানা নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে। বিশেষ করে নারীদের কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ার ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করায় ক্ষুব্ধ অনেকেই।

গত ডিসেম্বরের মাঝামাঝি আফগানিস্তানের টোলো টিভির একটি লাইভ অনুষ্ঠানে নারী শিক্ষায় নিষেধাজ্ঞার প্রতিবাদ জানান অধ্যাপক ইসমাইল মাশাল।

ওই অনুষ্ঠানে নিজের শিক্ষার সার্টিফিকেট ছিঁড়ে ফেলে অধ্যাপক মাশাল বলেন, ‘আজ থেকে আমার এসবের দরকার নেই। কারণ, এই দেশে শিক্ষার কোনো জায়গা নেই। যদি আমার মা-বোনেরা শিক্ষা গ্রহণের সুযোগ না পায়, তাহলে আমিও এই শিক্ষা চাই না ‘

মাশালের প্রকাশ্যে সার্টিফিকেট ছিড়ে ফেলা ও বক্তব্যের ভিডিও ভাইরাল হয়ে পড়ে। এরপর থেকেই তালেবানের তোপের মুখে ছিলেন তিনি।

৩৭ বছরের অধ্যাপক মাশালকে গ্রেপ্তারের কথা নিশ্চিত করেছে তালেবান কর্তৃপক্ষ। তার বিরুদ্ধে জনগণকে উস্কানির অভিযোগ তালেবান সরকারের।

আফগান তথ্য ও সংস্কৃতি মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তা আব্দুল হক হাম্মাদ টুইটারে এক বার্তায় জানান, রাস্তায় সাংবাদিক ও লোকজনকে জড়ো করে বিশৃঙ্খলা তৈরি এবং তালেবান সরকারের ক্ষতি করা চেষ্টার অপরাধে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

বাংলাদেশ সময়: ২০:৫২:৪৫ ● ২২৬ বার পঠিত




পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)

আর্কাইভ