মধ্যনগরে এম পি মোয়াজ্জেম হোসেন রতনের উপস্থিতিতে এক নারী নেত্রীকে হেয় প্রতিপন্ন করে বক্তব্য দেওয়ার প্রতিবাদে মানববন্ধন

Home Page » সারাদেশ » মধ্যনগরে এম পি মোয়াজ্জেম হোসেন রতনের উপস্থিতিতে এক নারী নেত্রীকে হেয় প্রতিপন্ন করে বক্তব্য দেওয়ার প্রতিবাদে মানববন্ধন
বুধবার ● ১৫ মার্চ ২০২৩


 নারী নেত্রীকে হেয় প্রতিপন্ন করে বক্তব্য দেওয়ার প্রতিবাদে মানববন্ধন

মধ্যনগর(সুনামগঞ্জ) সংবাদদাতা :
সুনামগঞ্জের মধ্যনগর উপজেলায় জলজনপদ নারী ও শিক্ষা উন্নয়ন সংস্থা নামে এক সামাজিক সংগঠনের ব্যানারে মানববন্ধন কর্মসূচি পালিত হয়েছে। গতকাল ১৫ মার্চ(বুধবার) বেলা ২টার দিকে উপজেলার বংশীকুন্ডা মমিন উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে অনুষ্ঠিত মানববন্ধনে প্রায় পাঁচশতাধিক নারী অংশ নেন।
মানববন্ধন কর্মসূচিতে অংশগ্রহণ কারী ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেত্রী প্রভাষক সুমী হাসান বলেন,গত ৬মার্চ ওই ইউনিয়নের বংশীকুন্ডা মমিন উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে ইউনিয়ন যুবলীগের ত্রিবার্ষিক সম্মেলনে স্থানীয় সংসদ সদস্য মোয়াজ্জেম হোসেন রতন সাহেবের উপস্থিতিতে মধ্যনগর
উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য ও আমাদের রাজনৈতিক অভিভাবক নারী নেত্রী সাজেদা আহমেদকে হেয় প্রতিপন্ন করে বক্তব্য দেওয়ার প্রতিবাদে এই মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করছেন তারা।
মানববন্ধনের আয়োজক সংগঠনের সভাপতি ও আওয়ামী লীগ নেত্রী সাজেদা আহমদ বলেন, এমপি রতনের উপস্থিতিতে তার কতিপয় অনুসারী আমাকে সহ উপজেলা আওয়ামী লীগের দায়িত্বশীল নেতৃবৃন্দকে হেয় প্রতিপন্ন করে বক্তব্য দিয়েছেন।যারা এসব বক্তব্য দিয়েছেন এদের বেশির ভাগ লোকই আওয়ামী লীগ বা অঙ্গসংগঠনের কেউ নয়।
এছাড়া এমপি রতন আওয়ামী লীগের সিনিয়র নেতাদের বিরুদ্ধে যুবলীগের নেতাকর্মীদের উষ্কানি দিয়ে আওয়ামী লীগের দলীয় শৃংখলা নষ্ট করছেন বলে দাবি করেন এই নেত্রী।
তিনি আরো বলেন, মধ্যনগর উপজেলা সদরে সরকারি অর্থে নির্মিত বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রীর ম্যুরালে ডিজাইন বহির্ভূতভাবে এমপি রতন ও তার ভাইয়ের ছবি বসানো হয়েছিল। বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রীর মর্যাদা সমুন্নত রাখতে ঐ ম্যুরাল থেকে এমপি রতন ও তার ভাইয়ের ছবি সরাতে আমি হাইকোর্টে রীট করি। হাইকোর্টের নির্দেশে সরকারের সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ তাদের ছবি বঙ্গবন্ধুর ম্যুরাল থেকে সরিয়ে দেয়। এ কারণে এমপি রতন আমি সহ উপজেলা আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দের প্রতি ক্ষিপ্ত৷ হন।তাই গত ৬মার্চ যুবলীগের সম্মেলনে আমাকে সহ উপজেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র নেতাদের বিরুদ্ধে বিভিন্ন উষ্কানিমূলক বক্তব্য দিয়েছেন এমপির অনুসারীরা।
মানববন্ধনে অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক লীগের সদস্য প্রভাষক সুমী হাসান, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাবেক মহিলা বিষয়ক সম্পাদিকা শামসুন্নাহার বেগম,
ইউনিয়ন যুব মহিলা লীগের সহসভাপতি মমতাজ বেগম,ইউপি সদস্যা রাজিয়া খাতুন প্রমূখ।
এদিকে যুবলীগের ঐ সম্মেলনে এমপি রতনের অনুসারীদের রাজনৈতিক শিষ্টাচার বহির্ভূত বক্তব্যের প্রতিবাদে সর্বস্তরের এলাকাবাসী’র ব্যানারে গত ১৩ মার্চ(সোমবার) বিকেলে বংশীকুন্ডা বাজারে মুখে কালো কাপড় বেঁধে মৌন মিছিল করেছিল৷ বিভিন্ন শ্রেণিপেশার সহস্রাধিক মানুষ ।
এ বিষয়ে মধ্যনগর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক পরিতোষ সরকারের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন,এমপি রতন ক্যাসিনো কেলেংকারী সহ বিভিন্ন দূর্নীতিতে লিপ্ত থাকায় দূদকের মামলার আসামি । তার বিভিন্ন বিতর্কিত ও অপকর্মের দায় আওয়ামী লীগ নিতে পারে না।
এ ব্যাপারে সংসদ সদস্য মোয়াজ্জেম হোসেন রতনের মুঠোফোনে জানতে চাইলে বলেন, এবিষয়ে আমার কোন বক্তব্য নাই।মানববন্ধন তো করতেই পারে, এসব নিয়ে কথা বলার সময় আমার নাই।
#

বাংলাদেশ সময়: ১৭:১৩:২২ ● ৬৩৬ বার পঠিত




পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)

আর্কাইভ