সাম্প্রতিক শিশু ও নারীর প্রতি যৌন নিপীড়নের অভিযোগ। সুবর্ণযাত্রা-র অবস্থান

Home Page » ফিচার » সাম্প্রতিক শিশু ও নারীর প্রতি যৌন নিপীড়নের অভিযোগ। সুবর্ণযাত্রা-র অবস্থান
মঙ্গলবার ● ১১ এপ্রিল ২০২৩


সংগৃহীত লোগো

বঙ্গনিউজ: মঙ্গল শোভাযাত্রায় হোক অশুভ’র অবসান। সম্প্রতি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে নাট্যসংগঠক, আবৃত্তিশিল্পী আমিনুল ইসলাম চৌধুরী লিটনের বিরুদ্ধে শিশু ও নারীদের উপর যৌন নিপীড়নের অভিযোগ উত্থাপিত হয়েছে। সুবর্ণযাত্রা এর তীব্র ঘৃনা, নিন্দা এবং যথাযথ তদন্ত সাপেক্ষ বিচার দাবি করছে।

অভিযোগ করলেই যেমন কেউ তাৎক্ষণিকভাবে অভিযুক্ত হয়ে যায় না, ঠিক তেমনি কোন প্রকার কার্যকারণ ছাড়া কেউ সাধারণত: কারো বিরুদ্ধে এমন অভিযোগ উত্থাপন করে না। আমাদের মনে রাখতে হবে, একজন শিশু কিংবা তার অভিভাবক অথবা একজন নারী কি রূপ ভয়ঙ্কর পরিস্থিতির ভেতর দিয়ে গেলে এমন অভিযোগ আনতে পারেন!

প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে সংস্কৃতিকর্মীর সামাজিক-রাজনৈতিক দায়িত্ববোধ থেকেই আমরা যেমন, শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয়ে আন্দোলনরত ছাত্রদের প্রতি সংহতি জানিয়ে রাজপথে ছিলাম, স্মরণকালের বন্যায় বানভাসি মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছিলাম ঠিক তেমনি এমন গ্রহণকালো সময়ে আমরা দ্ব্যর্থহীন ভাষায় ঘোষণা করতে চাই, নিজেকে সম্পুর্ন নিরাপরাধ প্রমাণ না করা পর্যন্ত, আমিনুল ইসলাম চৌধুরী লিটনের সাথে আমাদের কোন প্রকার সম্পর্ক থাকবে না।

সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোট সিলেট, পাঠশালা সিলেট, দর্পণ থিয়েটার সিলেট, নগরনাট সিলেট, থিয়েটার বাংলা সিলেট সহ যেসকল সংগঠন বিবৃতি ও কর্মসূচি ঘোষণা করেছেন, আমরা তাঁদের সাথে একাত্মতা প্রকাশ করছি। সেই সাথে আগামীতে যারা যৌক্তিক ও আদর্শিক ভূমিকা পালন করবেন, তাঁদের সাথেও সংহতি প্রকাশ করছি।

এমন অন্ধকার সময়েও একটি বিষয় আমাদের আশাবাদী করেছে। সেটা হলো, সমাজের নানা স্তরে ঘটতে থাকা এমন ঘটনার প্রতিবাদ তেমনভাবে দৃশ্যমান না হলেও,  সংস্কৃতিকর্মীর ঘৃণিত কর্মের বিরুদ্ধে সংস্কৃতিকর্মীরাই রুখে দাঁড়িয়েছে। যা তাঁর শ্বাশত চরিত্রের প্রকাশ। যদিও অনেকেই নিশ্চুপ তারপরও তরুণদের প্রতিবাদের ভাষায় আমরা অনুপ্রাণিত। নিশ্চিতভাবেই বলতে পারি আঁধার কাটবেই। সংস্কৃতির বহমানধারা বহতা নদীর মতো বয়ে চলবে।

ঘটনা প্রকাশের পরপরই সম্মিলিত নাট্য পরিষদ, সিলেট ও সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোট, সিলেটের দায়িত্বশীলদের সাথে আমাদের মনোনীত প্রতিনিধি একাধিকবার কথা বলে কয়েকটি সুনির্দিষ্ট প্রস্তাব দিয়েছেন। পরবর্তীদের এমন প্রস্তাব আরো অনেকের কাছ থেকেই এসেছে। সেই আলোকে অভিভাবক সংগঠনগুলো কাজ করছে বলে আমাদের জানিয়েছেন। আমরা তাঁদের প্রতি আস্থা রাখতে চাই। পাশাপাশি সংগঠনগুলোর প্রতি আহবান- জরুরীভিত্তিতে সাংগঠনিক পর্যায়ে কাজ শুরু হোক। যাতে ট্রমা দূর হয়, সকলে নিরাপত্তাবোধ করে এবং সাংস্কৃতিক অঙ্গনের প্রতি মানুষের আস্থা অক্ষুন্ন থাকে।

আমরা সুবর্ণযাত্রার পক্ষ থেকে ৫ মে, ২০২৩ খ্রিষ্টাব্দ, শুক্রবার, বিকাল ৫টায়, মির্জাজাঙ্গালস্থ আমাদের মহড়াকক্ষে এ বিষয়ে কর্মশালা করবো। সেখান সকলের উপস্থিতি কামনা করছি। সেই সাথে ঘোষণা করছি, শিশু ও নারীদের উপর যৌন নির্যাতন, নিপীড়নসহ সকল অনিয়মের বিরুদ্ধে আমাদের লড়াই অব্যাহত থাকবে।

পরিশেষে, সকলের প্রতি আহবান-আসুন, নতুন বছরের প্রথমদিন আমরা সিলেটে অশুভশক্তির বিরুদ্ধ মঙ্গল শোভাযাত্রা করি। নবকিরণের আভায় মুছে যাক গ্লানি, মুছে যাক জরা।

সকলের শুভ বুদ্ধির উদয় হোক।

সুবর্ণযাত্রা, সিলেট।

বাংলাদেশ সময়: ১:১৩:৪১ ● ৫৩৯ বার পঠিত




পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)

আর্কাইভ