সুইডেনের পর ডেনমার্কে কোরআন অবমাননা !!

Home Page » জাতীয় » সুইডেনের পর ডেনমার্কে কোরআন অবমাননা !!
সোমবার ● ৩০ জানুয়ারী ২০২৩


ডেনমার্কে রুশ দূতাবাসের সামনে কোরআন হাতে রাসমুস পালুডান

বঙ্গ-নিউজ:সুইডেনে তুর্কি দূতাবাসের সামনে কোরআন অবমাননার ৯ দিনের মাথায় গতকাল ডেনমার্কে একই উসকানির পুনরাবৃত্তি করলেন রাসমুস পালুডান। পূর্বঘোষণা অনুযায়ী তিনি নিজেই ঘটনার ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করেছেন।  ডেনমার্কে রুশ দূতাবাসের সামনে পবিত্র কোরআনের একটি কপিতে অগ্নিসংযোগ করেছেন উগ্রপন্থী রাজনীতিক রাসমুস পালুডান। এসব ঘটনার পেছনে রাশিয়ার হাত থাকতে পারে বলে ইঙ্গিত দিয়েছেন ফিনল্যান্ডের পররাষ্ট্রমন্ত্রী পেক্কা হাভিসতো। রোববার ডেনমার্কে রুশ দূতাবাসের সামনে কোরআনে অগ্নিসংযোগ করেন রাসমুস পালুডান ।

ভিডিওতে পালুডান কোরআনের প্রজ্জ্বলমান কপি দেখিয়ে বলেন, এখন ডেনমার্কে কোরআনে অগ্নিসংযোগ করা হয়েছে। এর জন্য দায়ী হলো চেচেন রেস্টলার কাজমাত ও চেচনিয়ার নেতা রমজান কাদিরভ। তারা যদি সঠিক আচরণ করত, তাহলে এ ঘটনা ঘটত না।

এর আগে চেচেন বংশোদ্ভূত সুইডিশ মিক্সড মার্শাল আর্ট তারকা কাজমাত শিমায়েভ স্টকহোমে তুর্কি দূতাবাসের সামনে কোরআন অবমাননায় ক্ষোভ জানিয়ে ইনস্টাগ্রামে পোস্ট করেন। এতে তিনি সুইডিশ কর্তৃপক্ষের কাছে প্রশ্ন রাখেন- কেন আপনারা তাকে (পালুডান) এ কাজ করতে দিলেন?

২৮ বছর বয়সী এ তারকা আরও লেখেন, আমাদের চোখে সে (পালুডান) সন্ত্রাসী। আমি একজন মুসলিম। আমি জীবনে কখনও কারও ধর্মের বিরুদ্ধে ছিলাম না। কারও ধর্মকে কখনও আক্রমণ করিনি। কেন আপনারা তাকে এমন করতে দিলেন। আপনারা চুপ থাকতে বলছেন কিন্তু আমরা সবাই তো চুপ হব না। আপনারা আমাদের ভাই ডাকেন। ভাই মনে করলে সম্মান প্রদর্শন করুন।

একইভাবে, চেচেন নেতা রমজান কাদিরভ স্টকহোমে কোরআন অবমাননার জন্য সুইডিশ রাজনীতিকদের দায়ী করেন। টেলিগ্রামে এক পোস্টে তিনি লেখেন, সুইডেনের রাজনীতিকদের সহায়তা ছাড়া এমন ঘৃণ্য অপরাধ করা সম্ভব না। যারা এ কাজের পেছনে রয়েছে, তারা সবাই জাহান্নামে পুড়বে।

ব্লুমবার্গ জানিয়েছে, সুইডেন ও ডেনমার্কে কোরআন অবমাননার পেছনে রুশ সরকারের হাত থাকতে পারে বলে ইঙ্গিত করেছেন নরডিক অঞ্চলের আরেক দেশ ফিনল্যান্ডের পররাষ্ট্রমন্ত্রী পেক্কা হাভিসতো। সুইডেন ও ফিনল্যান্ডের ন্যাটোতে যোগদানের আবেদনে তুরস্ক যাতে সাড়া না দেয়, সেজন্য বিভেদ সৃষ্টির উদ্দেশ্যে এমন কাজ করা হতে পারে বলে তিনি মত প্রকাশ করেন।

শনিবার রাতে ইলি টিভি ওয়ানের সঙ্গে এক সাক্ষাৎকারে হাভিসতো বলেন, রাশিয়ার সঙ্গে পালুডানের সম্ভাব্য সংযোগের বিষয়ে তদন্ত হয়েছে এবং কিছু যোগসূত্র পাওয়া গেছে। এ থেকে প্রশ্ন উঠেছে তৃতীয় কোনো পক্ষ যেমন রাশিয়া অথবা অন্য কেউ নিজের স্বার্থসিদ্ধির জন্য উসকানি দিচ্ছে কিনা।

চলতি সপ্তাহের শুরুতে সুইডেনের প্রধানমন্ত্রী উলফ ক্রিস্টেনসেন বলেন, সুইডেনের ভেতরে-বাইরে কিছু শক্তি ন্যাটোতে যোগদান ব্যাহত করতে চায়। সুইডেনের সঙ্গে অন্য দেশের সম্পর্কের অবনতি ঘটাতে উসকানির ঘটনাগুলো আমাদের সেভাবে দেখা জরুরি।

সুইডিশ মিডিয়ার বরাতে দ্য গার্ডিয়ানের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ইসলামবিদ্বেষী উসকানিদাতা রাসমুস পালুডান যে বিক্ষোভ কর্মসূচিতে মুসলমানদের ধর্মগ্রন্থে অগ্নিসংযোগ করেছেন, তার পারমিট নেওয়ার খরচ দিয়েছেন রাশিয়ার সঙ্গে সম্পৃক্ত এক সাংবাদিক। রাশিয়া টুডের সাবেক প্রদায়ক চাং ফ্রিক পালুডানের পারমিটের জন্য ৩২০ সুইডিশ ক্রোনার (৩১ ডলার) পরিশোধের কথা স্বীকার করেছেন বলেও প্রতিবেদনে জানানো হয়।

এর আগে ২১ জানুয়ারি স্টকহোমে কোরআন অবমাননার পর মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ বিভিন্ন দেশের পাশাপাশি রাশিয়ার পক্ষ থেকেও তীব্র নিন্দা ও উদ্বেগ জানানো হয়। এরপর ২৭ জানুয়ারি শুক্রবার ডেনমার্কে রুশ কনসুলেটের কাছে একটি মসজিদের সামনে পালুডান একই কাজ করলে সেবারও নিন্দা জানিয়ে বিবৃতি দেয় রুশ দূতাবাস।

বাংলাদেশ সময়: ২০:১৫:১৯ ● ৩০৪ বার পঠিত




পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)

আর্কাইভ