অধ্যাপক ড. রফিকুল ইসলাম তালুকদারের নির্বাচনী ইশতেহার

Home Page » ফিচার » অধ্যাপক ড. রফিকুল ইসলাম তালুকদারের নির্বাচনী ইশতেহার
বুধবার ● ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৩


অধ্যাপক ড. রফিকুল ইসলাম তালুকদার

আগামী জাতীয় নির্বাচন কে সামনে রেখে মাঠ পর্যায়ে জনসংযোগ শুরু করেছে দেশের প্রধান দুই দলের মনোনয়ন প্রত্যাশীরা।কেউ ব্যানার পোস্টার টানিয়ে আবার কেউ কেউ মোটরসাইকেল শোডাউনের মধ্য দিয়ে যার যার শক্ত অবস্থান জানান দিচ্ছেন। এই দিকে নির্বাচন কে কেন্দ্র করে চায়ের কাপে উঠছে আলোচনার ঝড়।বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশীদের মধ্যে অন্যতম অধ্যাপক  ড. মোহাম্মদ রফিকুল ইসলাম তালুকদার।

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের প্রাক্কালে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ থেকে সুনামগঞ্জ-১ আসনের জন্য মনোনয়ন প্রত্যাশায় ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয় থেকে অবৈতনিক ছুটি নিয়ে টানা চার বৎসর মাঠে নিবিড় কার্যক্রম পরিচালনা করেছেন ড. তালুকদার। ফলে তিনি আট বৎসর যাবৎ সুনামগঞ্জ ১ (অর্থাৎ সংসদীয় আসন ২২৪) নির্বাচনী এলাকার জনগণের সাথে এবং আওয়ামী লীগের মাঠ পর্যায়ের রাজনৈতিক কর্মসূচির সাথে নিবিড়ভাবে সম্পৃক্ত। প্রাসঙ্গিকভাবেই আগামী দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে একই আসন থেকে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশীদের মধ্যে সবচেয়ে জনগ্রহণযোগ্য ও ভোটের রাজনীতিতে অত্যন্ত শক্তিশালী মনোনয়ন প্রত্যাশী অধ্যাপক ড. তালুকদার।

অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ রফিকুল ইসলাম তালুকদার একজন রাজনীতিক, প্রাবন্ধিক, গবেষক ও শিক্ষাবিদ।তিনি আমেরিকান ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি-বাংলাদেশ(এআইইউবি)-র ফ্যাকাল্টি অফ বিসনেস এডমিনিস্ট্রেশনের বিশেষ মর্যাদা সম্পন্ন অধ্যাপক। এর আগে তিনি ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্র্যাক ইনস্টিটিউট অফ গভর্নেন্স এন্ড ডেভেলপমেন্ট, এশিয়ান ইনস্টিটিউট অফ ম্যানেজমেন্ট ও জাতিসংঘ উন্নয়ন কর্মসূচি, এবং বাংলাদেশ সরকার ও বিশ্বব্যাংকের মানব উন্নয়ন কর্মসূচির জন্য নেতৃত্ব লেভেলে বা অতি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকায় কাজ করেন। বাংলাদেশ সরকারের পারফরমেন্স ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম কনসেপ্টটি তিনি ডেভেলপ করেন এবং বিশ্বব্যাংকের অর্থায়নে ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষে বাংলাদেশ সরকারের জন্য এর পাইলট প্রকল্পের ডিসাইন তিনি করেন এবং এর জন্য সরকারের ক্যাপাসিটি বিল্ডিং ইনিশিয়েটিভ-এ তিনি ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষে নেতৃত্ব দেন। আন্তর্জাতিক পর্যায়ে তিনি একজন সিনিয়র গবেষক, এবং এডিবি, বিশ্বব্যাংক, ইউএনডিপি ও বাংলাদেশ সরকারের মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সিনিয়র কনসালটেন্ট বা পরামর্শক।

ইন্টারন্যাশনাল এডুকেশন সামিট অ্যান্ড অ্যাওয়ার্ডস ২০২০ ড. তালুকদারকে শিক্ষাদান, গবেষণা এবং পাঠ্যক্রম উন্নয়নে গুরুত্বপূর্ণ অবদানের জন্য একজন অসাধারণ প্রশিক্ষিত স্নাতক শিক্ষক হিসেবে নির্বাচিত করেছে। রাজনৈতিক অর্থনীতি, জেন্ডার-সংবেদনশীল বাজেট ও পরিকল্পনা, জেন্ডার ও উন্নয়ন, বিকেন্দ্রীকরণ ও শাসন, টেকসই উন্নয়ন, কর্মক্ষমতা ব্যবস্থাপনা, প্রতিভা ব্যবস্থাপনা, কৌশলগত ও পরিবর্তন ব্যবস্থাপনা, এবং নেতৃত্ব ও উদ্যোক্তা উন্নয়ন তার গবেষণার আগ্রহের মধ্যে রয়েছে। তিনি ২টি আন্তর্জাতিকভাবে প্রকাশিত বই, ২টি জাতীয়ভাবে প্রকাশিত বই, ৫টি আন্তর্জাতিকভাবে প্রকাশিত বইয়ের অধ্যায়, ১৫টি আন্তর্জাতিকভাবে প্রকাশিত স্কলারলি জার্নাল নিবন্ধ, ৬টি জাতীয়ভাবে প্রকাশিত পিয়ার-রিভিউ জার্নাল নিবন্ধ, ২টি পূর্ব-মূদ্রিত ওয়ার্কিং পেপার এবং ১০০টি মতামত প্রবন্ধ রচনা ও প্রকাশ করেছেন। তিনি বাংলাদেশ, থাইল্যান্ড, ফিলিপাইনস এবং ভিয়েতনাতে বেশ কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ গবেষণা ও এসাইনমেন্ট সম্পাদন করেন।

তার রাজনৈতিক পরিচয়: তিনি আহবায়ক, বঙ্গবন্ধু পরিষদ-সুনামগঞ্জ জেলা। সাবেক ছাত্রলীগ কর্মী, সার্জেন্ট জহুরুল হক হল, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়। ১৯৯৫-৯৬ সালে বঙ্গবন্ধু কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার তত্ত্বাবধায়ক সরকার আন্দোলনে রাজপথের সহযোদ্ধা। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ১৯৯৪-৯৫ শিক্ষাবর্ষের প্রাক্তন ছাত্র-ছাত্রীদের ফোরাম DUFS এর সাবেক সহসভাপতি। আন্তর্জাতিক পোস্ট-গ্রাজুয়েট কার্যনিবাহী কমিটি (NIDA, ব্যাংকক) এর সাবেক সভাপতি।

পারিবারিক পরিচয়:তার গ্রামের বাড়ি তালুকদার বাড়ি, মহদীপুর, ধর্মপাশা-সুনামগঞ্জ-১এ দীর্ঘ নয় মাসব্যাপী মুক্তিযোদ্ধাদের ক্যাম্প ছিল (মোহনগঞ্জ-নেত্রকোনো এলাকার মুক্তিযোদ্ধারা সেখানে অবস্থান করেন)। পিতা - মোঃ নুরুল ইসলাম তালুকদার (মরহুম), কৃষক ও সমাজসেবী এবং অত্যন্ত সৎ ও মহৎ ব্যক্তিত্ব। মা - দিলারা ইসলাম তালুকদার, গৃহিণী ও একজন প্রতিভাময়ী ব্যক্তিত্ব এবং বিশিষ্ট বাউল সাধক উকিল মুন্সীর নাতনি। চাচা - আবদুল ওয়াহাব তালুকদার (সোনা মিয়া), মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম স্থানীয় সংগঠক। আরেক চাচা - অ্যাডভোকেট আব্দুল খালেক তালুকদার। পিতামহ - মক্রম আলী তালুকদার, আজীবন গ্রাম পঞ্চায়েত ও বিশিষ্ট সমাজসেবী। ভাই – ব্যবসায়ী (ধর্মপাশা উপজেলা যুবলীগের সদস্য)। একজন ব্রাদার-ইন-ল- পার্শ্ববর্তী মোহনগঞ্জ উপজেলা যুবলীগের সভাপতি। ভাতিজা - ব্যবসায়ী (ধর্মপাশা সদর ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি)। এক ভাগ্নে - ব্যারিস্টার (নেত্রকোনা জেলা ছাত্র লীগের সাবেক সভাপতি); আরেক ভাগ্নে - ঢাকা মহানগর উত্তর সহ-সভাপতি এবং কেন্দ্রীয় ছাত্র লীগের সাবেক উপসম্পাদক; আরেক ভাগ্নে- নেত্রকোনার আটপাড়া উপজেলার উপজেলা চেয়ারম্যান (নৌকায় নির্বাচিত)।

আগামী দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সুনামগঞ্জ-১ এর জন্য নৌকা মার্কায় মনোনয়ন পেলে প্রফেসর ড. তালুকদারের নির্বাচনী ম্যানিফেস্টো বা ইশতেহার হবে নিম্নরূপ:

# ক্লিন-ইমেজ বজায় রাখা

# জাতীয় পর্যায়ে ভাল আইন ও নীতি প্রণয়নে কার্যকরী ভূমিকা রাখা

#আন্তর্জাতিক সোশ্যাল, একাডেমিক ও পলিসি নেটওয়ার্ককে সরকার এবং দেশের কল্যাণে কার্যকরীঅর্থে কাজে লাগানো

# জনগণ এবং কর্মীদের কল্যাণে রাজনৈতিক অর্থনীতির সর্বোচ্চ ও কার্যকরী ব্যবহার নিশ্চিত করণ

# নূতন প্রজন্মের জন্য মাদক ও সন্ত্রাসমুক্ত ভাল সমাজ বিনির্মান

# কমিউনিটির স্থায়িত্বশীল উন্নয়ন

# তরুণদের জন্য কর্মসংস্থান

# যোগাযোগ ব্যাবস্থার স্থায়িত্বশীল অভুত উন্নয়ন, বিশেষ করে পুরো সুনামগঞ্জ-১ ও সুনামগঞ্জ বিশ্ববিদ্যালয়সহ এবং সিলেট পর্যন্ত ২৪ ঘন্টা কমিউটর রেল স্থাপন ও চালু

# ঢাকা থেকে মধ্যনগর পর্যন্ত ৬ লেন এর স্থায়িত্বশীল কংক্রিট রোড স্থাপন এবং পাবলিক–প্রাইভেট পার্টনারশিপ এবং প্রাইভেট ইনিশিয়েটিভ মডেলে স্ক্যানিয়ার মতো পর্যাপ্ত সংখ্যক এয়ার কন্ডিশনড এবং আধুনিক পরিবেশবান্ধব নন এসি দিবা রাত্রি ট্রান্সপোর্ট সার্ভিস চালু করণ

#সুনামগঞ্জ সিলেট, ঢাকা এবং ময়মনসিংহে সুনামগঞ্জ- ১ বাসীর জন্য স্বল্পমূল্যের আধুনিক পরিবেশবান্ধব রেস্টহাউস স্থাপন

# সুনামগঞ্জ-১ এর মেধাবী শিক্ষার্থীদের কারিগরি ও উচ্চ শিক্ষার জন্য মেধা বৃত্তি চালু করণ

# সুনামগঞ্জ-১ এর উদোক্তা তরুণদের জন্য বিনামূল্যে প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা এবং স্টার্টআপ ক্যাপিটাল ফান্ডিং চালু করণ

# সুনামগঞ্জ-১ এর বিদেশ গমন ইচ্ছুক স্বল্প শিক্ষিত তরুণদের আন্তর্জাতিক শ্রমবাজারের চাহিদা অনুযায়ী বিনামূল্যে প্রশিক্ষিত করন এবং বিদেশ গমন প্রক্রিয়া নিরাপদ, সহজ ও সুলভ করণ

# সুনামগঞ্জে একটি অভ্যন্তরীন বিমানবন্দর স্থাপন।

# সরকারি শিক্ষা ও স্বাস্থ্য সুবিধার পাশাপাশি বড় পরিসরে পাবলিক-প্রাইভেট পার্টনারশিপ এবং এনজিওভিত্তিক মডেলে আধুনিক মানসম্মত শিক্ষা, স্বাস্থ্য ও আইসিটি সেবা চালু করণ

# আধুনিক, কারিগরি, উদোক্তা, ব্যবসা ও বিজ্ঞানসম্মত শিক্ষার সুযোগসসহ সুনামগঞ্জ-১ এর ধর্মপাশায় একটি আধুনিক মাদ্রাসা বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপন।

যোগাযোগ:

অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ রফিকুল ইসলাম তালুকদার

what’s app ০১৭৩০০৫৬১৯৪

Email: rafiqul.talukdar@gmail.com

বাংলাদেশ সময়: ২১:৫১:৪৭ ● ৯১০ বার পঠিত




পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)

আর্কাইভ