বিএনপি নেতা দুলুসহ পাঁচ জন গ্রেপ্তার

Home Page » প্রথমপাতা » বিএনপি নেতা দুলুসহ পাঁচ জন গ্রেপ্তার
বুধবার ● ১৮ অক্টোবর ২০২৩


দুলুসহ পাঁচ জন গ্রেপ্তার
 বঙ্গ-নিউজঃ   সরকার পতনের এক দফা দাবিতে নয়াপল্টনে বিএনপির জনসমাবেশের আগের রাতে দলটির কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলুসহ অন্তত পাঁচ নেতাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তাদের মধ্যে দুলুকে গতকাল মঙ্গলবার রাতে রাজধানীর গুলশান এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)। এ ছাড়া জাতীয়তাবাদী তাঁতী দলের কেন্দ্রীয় কমিটির আহ্বায়ক আবুল কালাম আজাদসহ চার নেতাকে বিভিন্ন স্থান থেকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

গ্রেপ্তার অপর তিনজন হলেন– জাতীয়তাবাদী যুবদলের সহসভাপতি নাজমুল আলম নাজু, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক মোন্নাফ মুকুল ও যুক্তরাজ্য বিএনপির সহসভাপতি গোলাম রাব্বানী সোহেল।
ডিবির দায়িত্বশীল কর্মকর্তারা  জানান, ডিবির গুলশান বিভাগের একটি দল গত রাতে রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলুকে গ্রেপ্তার করে। তাঁর বিরুদ্ধে একাধিক পুরোনো মামলায় গ্রেপ্তারি পরোয়ানা রয়েছে। এর আগে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী জানান, রাত সাড়ে ১১টায় গুলশানের বাসা থেকে দুলুকে গ্রেপ্তার করা হয়। পরে অন্য নেতাদের আটকের খবর জানান বিএনপির এই নেতা। দুলুর ব্যক্তিগত সহকারী রনি জানান, বিএনপির এই নেতার বিরুদ্ধে শতাধিক মামলা রয়েছে। তবে সব মামলায় তিনি জামিনে আছেন।

জানা গেছে, রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু ক্যান্সারে আক্রান্ত। কিছুদিন আগে সিঙ্গাপুর থেকে চিকিৎসা শেষে তিনি দেশে ফিরেছেন। প্রতি সপ্তাহে তাঁকে কেমোথেরাপি দিতে হয়। এ ছাড়া নিয়মিত অন্যান্য ওষুধও খেতে হয়। এ অবস্থায় তাঁকে আটকের ঘটনায় উদ্বিগ্ন পরিবার। রাত সাড়ে ১২টার দিকে এ রিপোর্ট লেখার সময় তাঁর স্বজনরা রাজধানীর মিন্টো রোডে ডিবি কার্যালয়ের সামনে অবস্থান করছিলেন।

বিএনপি সূত্রের দাবি, নেতাদের ধরপাকড়ের উদ্দেশ্যে গত রাতে নয়াপল্টনসহ আশপাশের এলাকায় অভিযান চালায় পুলিশের একাধিক দল। এ সময় যুক্তরাজ্য বিএনপির সহসভাপতি গোলাম রাব্বানী সোহেলকে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে থেকে আটক করা হয়। দলীয় সূত্রে এ অভিযোগ করা হলেও পুলিশের পক্ষ থেকে বিষয়টি নিশ্চিত করা যায়নি। অপরদিকে জাতীয়তাবাদী তাঁতী দলের কেন্দ্রীয় কমিটির আহ্বায়ক আবুল কালাম আজাদসহ দু’জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গতকাল মঙ্গলবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে রাজধানীর শেওড়াপাড়া এলাকা থেকে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেপ্তার অপরজন হলেন আনিসুল হক লুলু। তাঁর দলীয় পদ বা বিস্তারিত পরিচয় তাৎক্ষণিকভাবে জানা যায়নি।

কাফরুল থানার ওসি ফারুকুল আলম সমকালকে বলেন, ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত হানার অভিযোগে করা একটি মামলার সন্দেহভাজন আসামি হিসেবে দু’জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। ফেব্রুয়ারি মাসে ওই মামলা দায়ের করা হয়। আজ বুধবার তাদের আদালতে হাজির করা হবে।

পুলিশ সূত্র জানায়, পুলিশের ওপর হামলা ও সরকারি কাজে বাধা দেওয়ার অভিযোগে করা আরেক মামলাতেও আবুল কালাম আজাদকে গ্রেপ্তার দেখানো হতে পারে। এ ছাড়া তাঁর বিরুদ্ধে রাজনৈতিক কর্মসূচি ঘিরে জ্বালাও–পোড়াওয়ের অভিযোগ রয়েছে। এদিকে সরকার পতনের এক দফা দাবিতে আজ নয়াপল্টনে বিএনপির জনসমাবেশ রয়েছে। কিন্তু গতকাল সন্ধ্যায় হঠাৎ করেই নয়াপল্টন এলাকার বিভিন্ন ভ্রাম্যমাণ খাবারের দোকান ও টং দোকান উচ্ছেদ করে পুলিশ। ওই এলাকায় আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সাদা পোশাকধারী সদস্যদের অতিরিক্ত উপস্থিতি লক্ষ্য করা গেছে। পুলিশের এমন অবস্থান দেখে কার্যালয় থেকে চলে যান দলটির নেতাকর্মীরা। বিএনপির দপ্তর সূত্রে জানা যায়, তখন কয়েকজনকে বিভিন্ন স্থান থেকে আটক করে পুলিশ। তাদের মধ্যে রয়েছেন যুবদল কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সহসভাপতি (রংপুর বিভাগ) ও রংপুর জেলা যুবদলের সভাপতি নাজমুল আলম নাজু এবং রংপুর বিভাগীয় যুবদলের সহসাংগঠনিক সম্পাদক ও দিনাজপুর জেলা যুবদলের সভাপতি মোন্নাফ মুকুল।

বিএনপি চেয়ারপারসনের মিডিয়া উইংয়ের কর্মকর্তা শামসুদ্দিন দিদার জানান, নয়াপল্টন বিএনপি কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের আশপাশের সব আবাসিক হোটেলে তল্লাশি চালাচ্ছে পুলিশ।

বাংলাদেশ সময়: ১০:১৪:৩৯ ● ১৩২ বার পঠিত




পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)

আর্কাইভ