বাইডেনপুত্র হান্টার বন্দুক মামলায় দোষী সাব্যস্ত

Home Page » জাতীয় » বাইডেনপুত্র হান্টার বন্দুক মামলায় দোষী সাব্যস্ত
বুধবার ● ১২ জুন ২০২৪


বাইডেনপুত্র হান্টার

বঙ্গ-নিউজ: আগ্নেয়াস্ত্র কিনতে গিয়ে মাদকাসক্তি নিয়ে মিথ্যা তথ্য দেওয়ার মামলায় দোষী সাব্যস্ত হয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের ছেলে হান্টার বাইডেন। মঙ্গলবার যুক্তরাষ্ট্রের একটি আদালত তাকে দোষী সাব্যস্ত করে রায় দিয়েছে। এখনও তার সাজা ঘোষণা না হলেও এ মামলায় সর্বোচ্চ শাস্তি ২৫ বছরের জেল। খবর বিবিসি ও সিএনএনের।

যুক্তরাষ্ট্রের ডেলাওয়্যার অঙ্গরাজ্যের উইলমিংটন ফেডারেল আদালতের ১২ সদস্যের জুরি বোর্ড স্থানীয় সময় মঙ্গলবার হান্টার বাইডেনের বিরুদ্ধে আনা ফৌজদারি অপরাধের তিনটি অভিযোগেই তাকে দোষী সাব্যস্ত করেন।

এর মধ্যে দিয়ে ক্ষমতাসীন কোনো মার্কিন প্রেসিডেন্টের প্রথম সন্তান হিসেবে ফৌজদারি অপরাধে দোষী সাব্যস্ত হয়েছেন বাইডেনপুত্র হান্টার। আদালতের রায় ঘোষণার সময় খুব বেশি বিচলিত দেখা যায়নি ৫৪ বছরের হান্টারকে।

জুরি বোর্ডের রায় ঘোষণার কয়েক মিনিট পরে ফার্স্ট লেডি জিল বাইডেন আদালতে পৌঁছেন এবং হান্টার তার মা ও স্ত্রী মেলিশার সঙ্গে আদালত থেকে বেরিয়ে এসে গাড়িতে ওঠেন। এসব ব্যাপারে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেননি কেউ।

মামলার তথ্যমতে, হান্টার ২০১৮ সালে রিভলবার কেনার সময় ক্রয় ফরমে বাধ্যতামূলক যেসব তথ্য দিতে হয়, সেখানে মিথ্যা তথ্য দিয়েছিলেন। অস্ত্র কিনতে হলে মাদকাসক্ত কিংবা কোনো নেশাদ্রব্য গ্রহণ করেন কিনা, সেটি স্পষ্ট উল্লেখ করতে হয়। কিন্তু হান্টার অস্ত্র বিক্রেতাকে তিনি মাদকাসক্ত নন বলে মিথ্যা তথ্য দেন এবং মাদকাসক্ত অবস্থায় অস্ত্রটি নিজের কাছে রাখেন, যা মার্কিন আইনে পুরোপুরি অবৈধ।

প্রসিকিউটররা জানিয়েছেন, দোষী সাব্যস্ত হওয়ায় এ মামলায় হান্টারের সর্বোচ্চ ২৫ বছরের জেল হতে পারে। কেননা, আগ্নেয়াস্ত্র কিনতে গিয়ে মিথ্যা তথ্য দেওয়ায় সর্বোচ্চ ১০ বছর, অস্ত্র বিক্রেতার নথিপত্রে ভুয়া কাগজ জমার অপরাধে সর্বোচ্চ ৫ বছর এবং মাদকাসক্ত অবস্থায় আগ্নেয়াস্ত্র রাখার অপরাধে সর্বোচ্চ ১০ বছরের কারাদণ্ড হতে পারে।

এদিকে আদালতের সিদ্ধান্ত ঘোষণার পর প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন এক প্রতিক্রিয়ায় বলেছেন, মামলার ফলাফল যাই হোক তিনি মেনে নেবেন। হান্টারকে যদি আপিলের সুযোগ দেওয়া হয়, তবে বিচারিক প্রক্রিয়াকে সম্মান জানাবেন তিনি।

বাংলাদেশ সময়: ২১:০৪:১৮ ● ৬৩ বার পঠিত




পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)

আর্কাইভ