পুতিন তার মন্ত্রিসভার চারজন উপ-প্রতিরক্ষা মন্ত্রীকে বরখাস্ত করেছেন

Home Page » জাতীয় » পুতিন তার মন্ত্রিসভার চারজন উপ-প্রতিরক্ষা মন্ত্রীকে বরখাস্ত করেছেন
মঙ্গলবার ● ১৮ জুন ২০২৪


ইউক্রেন যুদ্ধের দুবছর পূর্ণ

বঙ্গ-নিউজ: ইউক্রেন রাশিয়ার যুদ্ধ প্রায় দুবছর অতিক্রান্ত হলো। প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন গতকাল তার মন্ত্রিসভার চারজন উপ-প্রতিরক্ষা মন্ত্রীকে বরখাস্ত করেছেন। এ পদে আপাতত তিনি তার একজন আত্মীয়াকে নিয়োগ দিয়েছেন। খবর রয়টার্স।

ফাইল ছবি-রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট পুটিন

আন্তর্জাতিক প্রেক্ষাপটে রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় খুবই গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে থাকে। ইউক্রেনের সঙ্গে যুদ্ধ শুরু পর এর গুরুত্ব আরও বেড়ে যায়। কিন্তু এ সময়ে রুশ সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে নানা রকম অনিয়মের অভিযোগ ওঠে। এ অবস্থায় গত মে মাস থেকে পুতিন প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ে বড় ধরনের পরিবর্তন আনতে থাকেন।

গত মে মাসে পুতিন তার দীর্ঘদিনের প্রতিরক্ষা মন্ত্রী সের্গেই শোইগুকে তার পদ থেকে সরিয়ে দেন। পুতিন জানান, মন্ত্রণালয়ের অপচয় ও দুর্নীতি দূর করার পাশাপাশি রণক্ষেত্রে নিযুক্ত সৈন্যদের চাহিদা পূরণের জন্য রাশিয়ার যুদ্ধ অর্থনীতিকে আরও কার্যকরভাবে ব্যবহার করতে এই পদক্ষেপ নিয়েছেন তিনি। এর ধারাবাহিকতায় গত এক মাসে বেশ কয়েকজন শীর্ষস্থানীয় মন্ত্রী ও দায়িত্বশীলকে তাদের দায়িত্ব থেকে বরখাস্ত করার পাশাপাশি গ্রেপ্তারও করা হয়। সর্বশেষ সোমবার চারজন উপ-প্রতিরক্ষা মন্ত্রী নিকোলাই পানকভ, রুসলান সালিকভ, তাতিয়ানা শেভতসোভা ও পাভেল পপভকে বরখাস্ত করা হলো।

একই সঙ্গে তিনি তার প্রয়াত চাচাতো ভাইয়ের মেয়ে আনা সিভিলেভাকে উপ-প্রতিরক্ষা মন্ত্রী হিসেবে নিযুক্ত করেন। তার স্বামী সের্গেই সিভিলেভ রাশিয়ার জ্বালানিমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। আনা সিভিলেভার দায়িত্বের মধ্যে থাকবে সামরিক কর্মীদের জন্য সামাজিক ও আবাসন সহায়তার উন্নতি করা। সিভিলেভা এর আগে ইউক্রেনে রাশিয়ার যুদ্ধ প্রচেষ্টায় অংশগ্রহণকারীদের সমর্থনে গঠিত একটি রাষ্ট্রীয় তহবিলের প্রধান হিসাবে দায়িত্ব পালন করছিলেন।

উল্লেখ্য, যুদ্ধে রাশিয়ার প্রতিপক্ষ ইউক্রেনর প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের দুর্নীতি নিয়ে ব্যাপক বিব্রতকর অবস্থায় পড়েছে। যুদ্ধ শুরুর কিছুদিন পর থেকেই সেখানে নিয়মিতভাবে বরখাস্ত কার্যক্রম চলছে। কখনো শীর্ষস্থানীয় কাউকে সরিয়ে দেওয়া হচ্ছে, আবার কখনোবা পুরো ইউনিট ধরেই বরখাস্তেরও ঘটনা ঘটেছে।

বাংলাদেশ সময়: ২০:৪২:০৩ ● ৬৪ বার পঠিত




পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)

আর্কাইভ